banglanewspaper

ডেস্ক রিপোর্ট: যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ইউটিউব সদর দফতরে হামলাকারী নিহত নারী ইউটিউবের উপর রেগে ছিলেন। তিনি তার ইউটিউব চ্যানেলের পোস্ট নিয়ে প্রতিষ্ঠানের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন অনলাইনের অন্যান্য মাধ্যমে।

ক্যালিফোর্নিয়ার পুলিশ এক প্রেস বিজ্ঞতিতে জানিয়েছে, আত্মঘাতী হওয়া ওই নারীর নাম নাসিম আগধাম (৩৯)। সান দিয়াগোর বাসিন্দা নাসিম হামলায় যে ব্যক্তিদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়েছিল তারা তার পূর্ব পরিচিত এমন কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

যদিও সিবিএস নিউজে বলা হয়েছে, আহত ব্যক্তিদের মধ্যে ৩৬ বছর বয়সী একজন হামলাকারী ওই নারীর বয়ফ্রেন্ড। তার অবস্থা গুরুতর। ওই বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, নাসিমের ইউটিউবে ও অন্যান্য সাইটে বেশ কিছু ভিডিও পাওয়া গেছে।

ওইসব ভিডিও থেকে জানা য়ায়, নিরামিষভোজী নাসিম একজন ক্রীড়াবিদ ও পশু অধিকার কর্মী ছিলেন। বেশ কিছু ভিডিও পোস্টে দেখা গেছে ইউটিউবের ওপর তিনি রেগে ছিলেন। ইউটিউবের ভিডিও ফিল্টারিং নীতি নিয়ে বেশ কিছু পোস্টও দিয়েছিলেন। ফিল্টারিংয়ের কারণে তার ভিডিওগুলোর ‘ভিউ’ বাড়ছিল না। এ জন্য তিনি বেশ বিরক্ত ও উদ্বিগ্ন ছিলেন।

ঘটনার পর পুলিশ যখন খতিয়ে দেখছিল তখন দেখা যায়, নীতি লঙ্ঘনের কারণ দেখিয়ে তার (নাসিম) ইউটিউব চ্যানেলটি পুরোপুরি সরিয়ে নেওয়া হয়। তবে কখন সরিয়ে নেওয়া হয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। নাসিম তার ওয়েবসাইটে লিখেছিলেন, ‘ইউটিউব বা অন্য কোনো ভিডিও শেয়ারিং সাইটে সবার জন্য সমান সুযোগ নেই, আপনার চ্যানেল বৃদ্ধি পাবে তবে তারা (প্রতিষ্ঠান) যদি চায়!!!!’

এই ঘটনার পরপর গুগলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) সুন্দর পিচাই কর্মীদের উদ্দেশে একটি নোট লিখেন। নোটে পিচাই সবাইকে ঘটনাটি এখন নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে বলে আশ্বস্ত করেন। এ ছাড়াও তিনি এ সময় সবাইকে সমর্থনের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং হামলায় আহত ব্যক্তি ও তাদের পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় ইউটিউব সদর দফতরে ওই নারী বন্দুকধারীর গুলিতে তিনজন আহত হয়েছেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে সন্দেহভাজন ওই বন্দুকধারী নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পুলিশের বরাত দিয়ে সিএনএন জানিয়েছে, সন্দেহজনক হামলাকারী নারীকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।

৩ এপ্রিল, মঙ্গলবার এই হামলার ঘটনা ঘটে। হামলায় আহতদের জাকারবার্গ সানফ্রান্সিসকো জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper চ্যানেল ইউটিউব অফিস হামলা