banglanewspaper

স্ত্রীকে মিলনে জোর করতে পারবেন না স্বামী। ৮ এপ্রিল রোববার এমন রায় দিয়েছেন ভারতের সর্বোচ্চ আদালত। খবর এনডিটিভি। যদি কোনো নারী না চায়, সে স্বামীর কাছে নাই থাকতে পারে। কিন্তু কোনো স্বামী তার স্ত্রীকে একসঙ্গে থাকার জন্য জোর করতে পারে না।

নারীরা ‘অবজেক্ট’ বা ‘ভোগ্য বস্তু’ নয়। এখন থেকে যদি কোনো নারী স্বামীর সঙ্গে থাকতে না চায় তাহলে তা পারবে। কিন্তু কোনো স্বামী তার স্ত্রীকে একসঙ্গে থাকার জন্য জোর করতে পারবে না।

সম্প্রতি এক স্ত্রী তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। অভিযোগ ছিল, তাঁর স্বামী তাঁর সঙ্গে ভালো ব্যবহার করেন না। প্রতিটি মুহূর্তে নিষ্ঠুরতার পরিচয় দেন। সেই কারণে তিনি তাঁর স্বামীর সঙ্গে থাকতে চান না। কিন্তু তাঁর স্বামী তাঁকে একসঙ্গে থাকার জন্য জোর করছেন। বিচারপতি দীপক গুপ্ত ও মদন বি লোকুরের বেঞ্চে ওঠে মামলাটি। তাঁরা ওই নারীর স্বামীকে আদালতে উপস্থিত হওয়ার নির্দেশ দেন।

ওই নারীর আইনজীবী জানায়, তার মক্কেল বিচ্ছেদ চান। ওই স্বামী তার মক্কেলের সঙ্গে নিষ্ঠুর আচরণ করেন। এভাবে তার মক্কেল একসঙ্গে থাকতে চান না।

সুপ্রিম কোর্ট এই মামলাটিতে আগেই জানিয়েছিল, স্বামী ও স্ত্রী দুজনই শিক্ষিত। তারা তাদের বিষয়টি নিয়ে মামলা দায়ের করার পরিবর্তে বিষয়টি আদালতের বাইরেই মিটিয়ে নিতে পারেন। সুপ্রিম কোর্ট দুজনের মধ্যে মধ্যস্থতা করতে বলে।

ট্যাগ: banglanewspaper সুপ্রিম কোর্ট মিলন