banglanewspaper

এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে প্রশাসনিক বদলীর আদেশ অনুযায়ী যথাসময়ে কর্মস্থলে যোগদান না করায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককের পদ অবমুক্ত হয়েছে। তিনি হচ্ছেন ৯৫নং বরইতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মো. নাছির হাওলাদার। 

উপজেলা শিক্ষা অফিস সূত্রে জানা গেছে, লাগাতারভাবে অসদাচারণ ও আর্থিক দুর্ণীতির অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় গত ২৯ মার্চ নাছির হাওলাদারকে প্রশাসনিক বদলী করা হয় ২৮৪নং পূর্ব সমদ্দারখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। আদেশে বলা হয় ৭ কর্ম দিবসের মধ্যে যোগদান না করলে পরবর্তী কর্মদিবস থেকে পদ অবমুক্ত বলে গণ্য হবে। যার স্মারক নং-উশিঅ/মোরেল/প্রশাসনিক বদলী/২০১৮/২১০/৯। তারিখ-২৯/৩/২০১৮। 

এ সম্পর্কে উপজেলা শিক্ষা অফিসার আশীষ কুমার নন্দী বলেন, সহকারি শিক্ষক নাছির হাওলাদার অফিস আদেশ লংঘন করেছেন। তবে আজ রবিবার বেলা ৩টায় ৭ দিনের বিশ্রামের জন্য ডাক্তারি সনদসহ একটি আবেদন করেছেন। ওই ডাক্তারি সনদ যাচাই বাছাই ও উর্ধ্বতন কর্তকর্তাদের সাথে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। 

বাগেরহাট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার অশোক কুমার সমদ্দার বলেন, নিয়ম অনুযায়ী নাছির হাওলাদারের পদটি অবমুক্ত হয়ে গেছে। 

অভিযুক্ত শিক্ষক নাছির হাওলাদার বলেন, ‘সহকারি শিক্ষা অফিসার, উপজেলা ও জেলা শিক্ষা অফিসার সকলেই আমার সাথে অন্যায় আচরণ করে চলছেন। তাদের অনৈতিক চাহিদা মেটাতে না পারায় তারা আমার বিরুদ্ধে এমন ব্যবস্থা নিয়েছে’। 

ট্যাগ: Banglanewspaper মোরেলগঞ্জ যোগদান শিক্ষক