banglanewspaper

আমিনুল ইসলাম (হিমেল) মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি: মৌলভীবাজার সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নের পাগুরিয়া গ্রামের ব্যবসায়ি রিপন মিয়া (১৭) ৮ দিন পর হত্যার রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জড়িত ৩ জনকে আটক করা হয়।

আককৃতরা হলেন, আবেদ আহমদ (২৫)জায়েদ আহমদ আলাল (২৮) ও মিনহাজ রহমান (২৯ । তাদের বাড়ি একই ইউনিয়নের বাসিন্দা বলে পুলিশ জানায়। তাদের দুজনকে আখাইলকুড়া ইউনিয়ন ও এক জনকে মৌলভীবাজার শহর থেকে আটক করে পুলিশ।
মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি সোহেল আহম্মদ মৌলভীবাজার২৪ ডট কমকে জানান,আবেদ ও রিপন মিয়া তারা দুজনই এলাকায় সুদের ব্যবসা করত ।

এলাকার অনেকেই সুহেলের কাজ থেকে সুদে টাকা নিত কিন্তু আবেদ কাজ থেকে সুদের টাকা নিত মানুষ কম এর জের ধরে আবেদ রিপনকে খুন করার প্রস্তুতি নেয়। পরে ৫ হাজার টাকার বিনিময়ে রিপন মিয়াকে খুন করায়।

সোমবার (৯ এপ্রিল) বিকেলে মিনহাজের ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দীতে হত্যার রহস্য উদঘাটন হয়।

উল্লেখ্য শনিবার (৩১ মার্চ) দিবাগত রাতে সদর উপজেলার আখাইলকুড়া ইউনিয়নের পাগুরিয়া গ্রামে এ ঘটনাটি ঘটে। রিপন মিয়া আখাইলকুড়া ইউনিয়নের পাগুরিয়া গ্রামের কাছন মিয়ার ছেলে। রিপন দীর্ঘদিন যাবত বাড়ির পাশে ওয়াপদা বাঁধের উপড় ব্যবসা করে আসছে শনিবার রাতে দোকান বন্ধ করে দোকানের ভিতর ঘোমায় রোববার সকালে তার বাবা দোকানে দিয়ে দেখতে পান দোকানের ভিতর রিপনের দেহ পড়ে আছে।পরে স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌচ্ছে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

ট্যাগ: banglanewspaper পুলিশ