banglanewspaper

নুরুল আজিম রনি তোমায় নিয়ে এর আগেও যখন জামাত বিএনপি পন্থী শাসক শ্রেনী নোংরা চালে ফাঁসিয়েছিলো তখন লিখেছিলাম। প্রতিবাদ করেছি নোংরাদের বিরুদ্ধ,। কারণ তুমি অবশ্যই জানো - তবু আবার বলছি, কারণ তুমি বর্তমান সময়ের হাইব্রিডে ঠাসা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এবং বঙ্গবন্ধুর প্রাণের সংগঠন ছাত্রলীগের সেই সেবক, যে কখনো কোন অন্যায়ের সাথে আপোষ করোনি। চারিদিকে গিজগিজ করা লোভী - ধান্দাবাজ আর নর্দমার কীট তুল্য মানসিকাতার মানুষরূপী পিশাচদের সাথে একাই লড়ে যাচ্ছো বছরের পর বছর। আর তোমার সেই লড়াইয়ে মানসিক শক্তি যোগাতেই আমার লেখা।

আমি তোমায় যতো টুকু জেনেছি তাতে বোধ করেছি, তুমি সাহসী,বুদ্ধিমান এবং বলিষ্ঠ মানসিকতার স্পষ্টবাদী ছেলে। আর সে কারণেই তোমায় আমি পছন্দ করি।

আচ্ছা এবার বলো তো - কোন বুদ্ধিতে তুমি দল ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলে ? আর কে বলেছে তোমার জন্য দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হবে ? এমন আবেগী সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমি এটা কি করতে চাচ্ছো, তুমি কি চাও তোমার এতো বছরের গড়া সংগঠনকে পিশাচের বাচ্চারা খুবলে খাক?

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে বাংলাদেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যখন গায়ে ছাত্রলীগের সিল এটে ছাত্রদল আর ছাত্র শিবির আবাধে তান্ডব করে বেড়াচ্ছে, তখন তোমার মতো ছেলের এমন ছেলেমানুষি আমি অন্ততপক্ষে মেনে নেবো না। আর তুমি তো নিজেই জানো যে, তোমাকে রাস্তা থেকে সরানোর জন্য কতো বড় বড় কুচক্রীরা একাত্ম হচ্ছে প্রতিদিন - কতো বার কতো ভাবে চেষ্টা করেছে তোমায় অপমানের চুড়ান্তে নিয়ে তোমার মনোবল ভেঙে দিতে কিন্তু এতো বছর কুচক্রীরা যেটা পারেণি, এখন তুমি নিজেই কেন ওদের চক্রান্তের ফাঁদের বলি হয়ে নিজেকে এভাবে গুটিয়ে নেয়ার সিদ্ধান্ত নিচ্ছো ! আমি ভেবে অবাক হচ্ছি কতো সহজেই কুচক্রীরা তোমায় ঘায়েল করে ফেললো, অথচ এক তোমাকে দেখেছি দলের সম্মানের জন্য রাত দিন এক করে লড়তে। দেখেছি জামাত বিএনপি আর হেফাজতের আখড়া খ্যাত জায়গায় থেকে একাই একশো হয়ে ওদের সমস্ত অপকর্মের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে। শুনেছি এই তোমার ভয়ে এলাকার জামাত শিবির ও ওদের জোটের দল যে কোন নষ্টামো করার আগে দু' বার ভেবে নেয়। শুনেছি তোমার আরো অনেক বলিষ্ঠতার কাহিনী। কিন্তু আজ আমি এ কোন রনীকে জানছি! তুমি আমার অনেক স্নেহের ছোট ভাই মেনেই বলছি - কুচক্রীদের ফাঁদের বলী হয়ে কোন রকম হটকারী সিদ্ধান নেবে না। তুমি আমাদের ঘরের অত্যন্ত সৎ, নিষ্ঠাবান, পরিশ্রমী এবং সত্যিকারের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত সৈনিক।

তুমি কোন ভাবেই নিজেকে একা ভাববে না, মনে রেখো বাংলাদেশের সত্যিকারের বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সমস্ত সৈনিকরা রয়েছে তোমার সাথে। জামাত শিবির বিএনপি জোটের পিশাচরা তোমার বিরুদ্ধে কি ভিডিও ফুটেজ ভাইরাল করলো সেটা দেখে আমাদের ধারণা আর বিশ্বাসে তোমার সম্পর্কে চির ধরাতে পারেণি, এবং ভবিষ্যতেও পারবে না।

আর দলের ভাবমূর্তির কথা ভুলে যাও। দলের বড় বড় নেতারাই টাকার বিনিময়ে পদ বানিজ্যের নীর্লজ্জতা করতে দ্বিধা করেণা, যারা সব জেনে বুঝেও প্রতিনিয়ত শিবির আর ছাত্রদলের পদ ভোগকারী নেতাদের ছাত্রলীগে ঢুকিয়ে এখানেও পদ বন্টন করে পবিত্র দলে অপবিত্রদের আস্তানা বানাচ্ছে তাদের যদি সামান্যতম লজ্জা বা দলের প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা করতে বিবেকে না ভাবে, তবে তোমার মতো বাচ্চা ছেলের এতো ভাবতে হবেনা। তবে হ্যা নীতিগত ভাবে আমরা আলাদা বলেই আমাদের বিবেক আর দলের জন্য ভালোবাসা থেকে আমরা এসব ভাবি। কিন্তু আবার এটাও চিন্তা করতে হবে যে, এতো ভেবে ভেবে তুমি যদি নিজেকে গুটিয়ে নাও, তাতেও কিন্তু মহা ক্ষতি তোমার সেই আত্মার সংগঠনেরই হবে।

তোমার অবর্তমানে পিশাচের বংশধরা আবারো খুবলে খাবে তোমার দেশের এবং দলের মানচিত্র। আর দলের সম্মানের কথা ভেবে সরে যাওয়া তোমাকে দেখতে হবে সেই ভয়ংকর দৃশ্য। একবার ভালো করে ভেবে বলো তো, তুমি কি সত্যিই পারবে সেই দৃশ্যের ভয়াবহতা সহ্য করতে ? পারবে না আমি জানি, তখন হয়তো আবেগী মনের আক্রোশে আত্মহত্যা করতে যাবে। তাই বলছি - জীবন থাকতে তুমি কখনোই পিশাচদের চক্রান্ত সফল হতে দিওনা, ঠিক আগেও যেমন দাওনি।

কিছু দিন আগে যখন ছাত্রদের টাকা ফেরত দিতে বাধ্য করেছিলে তখন, আবার ছাত্রলীগার হয়েও নারী কোটার পক্ষে দাঁড়িয়েছিলে তখনই আরো জোরেশোরে কুচক্রীরা তোমার সম্মানহানীর জন্য আলাদা ফাঁদ পাতার পরিকল্পনা করে রেখেছিল এটা সেই ফাঁদ নাটকের খণ্ডাংশ মাত্র। বাংলাদেশে যতো সব নষ্টামীর সাইবার এক্সপার্ট জামাত শিবির এবং জোটের কুলাংগাররা। এই পিশাচ শ্রেণী ভিডিও ভাইরাল করায় ও এক্সপার্ট সেটাও তুমি জানো, তাই পিশাচ কুলের জন্য আবারো তুমি যমদূত হয়ে তোমার ঘরেই থাকো। কোন ভাবেই তুমি সরে গিয়ে ওদের চলার পথকে মশৃন করে দিওনা। আমাদের ঘরের খাটি ছেলে আমাদের ঘরে থেকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে জীবন বিলিয়ে সোনার বাংলার স্বপ্নের বাস্তবায়নে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার হাতকে আরো মজবুদ করো এ প্রত্যাশা রইলো তোমার প্রতি। আর হ্যা এ গ্রেডের হয়েও মননে ফালতু কিছু মিডিয়ার নোংরামো দেখে দুঃখ পেওনা কারণ বেশীর ভাগ মিডিয়া এখন কুচক্রীদের টাকায় কেনা গোলাম, সব ভালোরা রয়েছে তোমার জন্য। তুমি সুস্থ থেকো, ভালো থেকো সব সময়।

জয় বাংলা
জয় বঙ্গবন্ধু।

 

লেখিকাঃ
সাংবাদিক,
মাকসুদা সুলতানা ঐক্য। 

 

 

 

 

 

 

 

(এ বিভাগে প্রকাশিত মতামত লেখকের নিজস্ব। বাংলাদেশ নিউজ আওয়ার-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে প্রকাশিত মতামত সামঞ্জস্যপূর্ণ নাও হতে পারে।)

ট্যাগ: banglanewspaper রনি ঐক্য