banglanewspaper

চট্টগ্রামে চাইল্ড কেয়ার ক্লিনিকে শিশু অদল বদল ঘটনায় তদন্ত কমিটি দায়সার প্রতিবেদন দাখিল করে প্রকৃত অপরাধীকে আড়াল করার চেষ্টা করছে মর্মে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ও মিডিয়াতে প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়ায় এক বিবৃতিতে প্রচলিত তদন্ত কমিটি গঠনের প্রক্রিয়াটি ত্রুটিপুর্ন ও যথাযথ নয় মর্মে অভিমত প্রকাশ করে তদন্ত কমিটি গঠনের প্রক্রিয়াটি সংশোধনের দাবি জানিয়েছে দশের ক্রেতা-ভোক্তাদের জাতীয় প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন কনজ্যুমারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) চট্টগ্রাম নগর ও বিভাগীয় নেতৃবৃন্দ।

সম্প্রতি চট্টগ্রামে চাইল্ড কেয়ার ক্লিনিকে শিশু অদল বদল বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন প্রকাশের পর এক বিবৃতিতে ক্যাব নেতৃবৃন্দ উপরোক্ত দাবি জানান।

বিবৃতিতে ক্যাব নেতৃবৃন্দ বলেন, সরকারের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাসহ যে কোন অপরাধের ঘটনা ঘটলেই প্রথমে নিজেদের স্বগোত্রিয় লোকজন দিয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করে থাকেন। প্রাথমিক ভাবে জনরোশের আক্রমন প্রশমন করার জন্য তদন্ত কমিটি গঠিত হলেও প্রকৃতপক্ষে তদন্ত কমিটি গঠনের মাধ্যমে ঘটনাটিকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করা হয় অধিকাংশ সময়। স্বগোত্রিয় লোকজন দিয়ে তদন্ত কমিটি গঠনের ঘটনাগুলো অনেকটা “বিড়ালকে মাছ পাহারা দেবার মতো”। 

কারণ স্বগোত্রিয় লোকজন কোন ভাবেই তাদের নিজেদের লোকজনের ত্রুটি প্রকাশ ও তুলে ধরতে পারবে না। আর বিশেষ করে যদি এটা আইন শৃংখলা বাহিনী বা চিকিৎসকের বেলায় ঘটে তাহলে সেটা একেবারেই সম্ভব নয়। ফলে শিক্ষা বোর্ড, শিক্ষা প্রশাসন, আইন শৃংখলা বাহিনী ও চিকিৎসা খাতে গঠিত কোন তদন্ত কমিটি আজ পর্যন্ত সঠিক তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেনি।

আর তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ এবং সে অনুসারে ব্যবস্থা গ্রহনের নজির দেশে তেমন একটা নাই। তাই যে কোন তদন্ত কমিটি গঠনের বেলায় স্বগোত্রিয় লোকজনের প্রতিনিধিত্ব রাখা, এখাতের বিশেষজ্ঞ, ভোক্তাদের প্রতিনিধি, স্থানীয় প্রশাসনের প্রতিনিধি ও গণমাধ্যমের প্রতিনিধি অর্ন্তভুক্ত করা হলে ঘটনার প্রকৃত সত্য উদঘাটন সম্ভব হবে। 

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ যে কোন তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশে সংস্লিষ্ঠ প্রশাসনের অনীহা ও ধীরগতির কারনে তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়ে জনগনের তেমন আগ্রহ থাকে না। ফলে ঘটনার প্রকৃত সত্য উদঘাটন ও সম্ভব হয়ে উঠে না। যা অনেকটা অপরাধীকে পার পেয়ে যাবার সুযোগ করে দেবার মতো আরো একটি বড় অপরাধ। আর এ ধরনের প্রক্রিয়া ঠিকিয়ে রেখে অপরাধমুক্ত সমাজ গঠন ও সত্যিকারের সুশাসন প্রতিষ্ঠা সম্ভব নয় বলে মন্তব্য করেন।

বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন ক্যাব কেন্দ্রিয় কমিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট এস এম নাজের হোসাইন, ক্যাব চট্টগ্রাম বিভাগীয় সাধারন সম্পাদক কাজী ইকবাল বাহার ছাবেরী, ক্যাব মহানগর সভাপতি জেসমিন সুলতানা পারু, সাধারন সম্পাদক অজয় মিত্র শংকু, দক্ষিন জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আবদুল মান্নান প্রমুখ। সংবাদ বিজ্ঞপ্তি

ট্যাগ: Banglanewspaper চট্টগ্রামে ক্লিনিক শিশু অদল বদল