banglanewspaper

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফের নয়াপাড়া ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আনছার বেগম (৪০) নামে এক নারী নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের অন্তত ৭জন আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত আনছার বেগম নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শরণার্থী ক্যাম্পের ডি ব্লকের ইলিয়াছের স্ত্রী। এ ঘটনায় ৬জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে পুলিশ। এদের মধ্যে ৩ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আটককৃতরা হলেন যথাক্রমে ওই ক্যাম্পের বশির আহমদের ছেলে ইব্রাহিম, ইয়াছিন, সৈয়দ আহমদ, ছালেহ আহমদ ও দিল বাহার।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ক্যাম্পে আগে থেকে একটি অস্থায়ী দোকান দিয়েছিল আনছার বেগমের পরিবার। তাদের দোকানের সামনে বশির আহমদের পরিবার নতুন একটি দোকান দেয়ার ব্যবস্থা নেয়। এনিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কথাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষে সংঘর্ষে ধারালো অস্ত্র নিয়ে একে অপরকে আঘাত করে। এতে আনছার বেগম ও তার বাবা গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে টেকনাফ উপজেলা হাসপাতাল ও পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনা হয়। সেখানেই সন্ধ্যায় আনসার বেগম মারা যান।

পুলিশ জানায়, এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের বশির আহমদের পরিবারের ৬ জনকে আটক করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য আনছার বেগমের মৃতদেহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা করে আটকদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রনজিত বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। 

ট্যাগ: bdnewshour24রোহিঙ্গা ক্যাম্প