banglanewspaper

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : গোপালগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীর গলায় ফাঁস দেওয়া লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার নিজড়া ইউনিয়নের বটবাড়ি গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধূর নাম সোনিয়া বেগম (৩২)। তাঁর স্বামী মো. এনায়েত উকিল সৌদি আরব প্রবাসী। তাঁদের বাড়ি নিজড়া ইউনিয়নের বটবাড়ি গ্রামে।

নিহতের স্বজনরা জানান, দুই মেয়েকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকতেন সোনিয়া। একই গ্রামের রুবেল খান তাঁকে বোন বলে ডাকতেন। আট মাস আগে সোনিয়ার একটি পুকুর ইজারা নিয়ে মাছের চাষ শুরু করেন রুবেল। এ ছাড়া সোনিয়ার বাড়ির বাজারঘাট করে দিতেন রুবেল। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা তৈরি হয় বলে জানা যায়।

রুবেল সোনিয়াকে বিভিন্ন জায়গায় বেড়াতে নিয়ে যেতেন। সেখানে বিভিন্ন সময় অন্তরঙ্গ ছবি তোলেন সোনিয়ার। এ সব ছবি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে সোনিয়ার কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকাও নেন রুবেল। সেই টাকা আদায়ের জন্য রুবেলকে চাপ দেন সোনিয়া। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

একপর্যায়ে রুবেল সোনিয়াকে দেখে নেওয়ার হুমকি দেন। এ ছাড়া ওই সব অন্তরঙ্গ ছবি ফেসবুকে ছেড়ে দেবে বলে জানান রুবেল। এদিকে রুবেলের ফোন নম্বর ব্লক করে দেন সেনিয়া। এতে আরো ক্ষিপ্ত হন রুবেল। গ্রামে সোনিয়ার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাতে শুরু করেন রুবেল।

নিহতদের অভিযোগ, রোববার বিকেলে নিজের ঘরে ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেন সোনিয়া।

ওই দিন রাতেই সোনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এরপর সোমবার ময়নাতদন্ত শেষে সোনিয়ার লাশ পরিবারের সদস্যদের হাতে হস্তান্তর করা হয়। সোমবার সন্ধ্যায় বটবাড়ি গ্রামের কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়েছে।

এ ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা দায়ের করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জের বৌলতলী পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) মো. ফরিদুল ইসলাম জানান, এখনও পর্যন্ত কোনো অভিযোগ পাওয়া যায়নি। এই ঘটনার পর থেকেই রুবেল পলাতক রয়েছেন। ওই নারীর  মোবাইলটি জব্দ করা হয়েছে। সেখানেও কিছু আলামত (ছবি, কল রেকর্ডিং, কল লিস্ট) পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন হাতে পেলে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান এসআই।

ট্যাগ: banglanewspaper আত্মহত্যা