banglanewspaper

ফিলিস্তিনে ইসরায়েলের শক্তি প্রয়োগের নিন্দা জানিয়ে একে মানবাধিকার লঙ্ঘন হিসেবে বর্ণনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী বিনালি ইলদ্রিম মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শেখ হাসিনাকে ফোন করলে তিনি এ নিন্দা জানান। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বাসসকে এ কথা জানান।

বাসসের খবরে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে ফোন করেন। তাঁরা প্রায় ১৫ মিনিট কথা বলেন। টেলিফোনে আলাপের সময় তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরে ক্ষোভ প্রকাশ করেন শেখ হাসিনা।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী স্বাধীন ফিলিস্তিনের প্রতি বাংলাদেশের পূর্ণ সমর্থনের কথা পুনর্ব্যক্ত করেন। প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলেন, তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী ফিলিস্তিন-সংক্রান্ত ওআইসির বিশেষ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দেওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। ১৮ মে তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহরে এই শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। শেখ হাসিনা এ উদ্যোগকে সময়োচিত পদক্ষেপ হিসেবে উল্লেখ করে স্বাগত জানান।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, গতকাল সোমবার জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস উদ্বোধনের সময় গাজা-ইসরায়েল সীমান্তে ইসরায়েলের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে কমপক্ষে ৫৮ জন ফিলিস্তিনি নিহত হয়। এ ছাড়া আহত হয় কয়েক হাজার ফিলিস্তিনি।

তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ করেছিল ফিলিস্তিনিরা। ২০১৪ সালের পর ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে এটি সবচেয়ে মারাত্মক সহিংসতা।

ট্যাগ: banglanewspaper ফিলিস্তিন প্রধানমন্ত্রী