banglanewspaper

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের এক সহকারী শিক্ষকের উপর হামরা চালিয়ে তার হাত ভেঙ্গে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। মঙ্গলবার রাত ১০ টার দিকে শহরের গণপূর্ত ভবনে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে জানান পিরোজপুর সদর থানার ওসি এস এম জিয়াউল হক। 

আহত স্কুল শিক্ষক মসিউর রহমান শুভ (৩০) সদর উপজেলার চিতলিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এবং সদর উপজেলার ঝাটকাঠী গ্রামের আশরাফ আলী খানের পুত্র। 

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহত শিক্ষক মসিউর রহমান শুভ জানান, মঙ্গলবার রাতে ব্যক্তিগত কাজে সে গণপূর্ত কার্যালয়ে যায়। এ সময় রাত ১০ টার দিকে অফিস কক্ষে স্থানীয় সন্ত্রাসী শাহীন, মামুন, মোস্তফা, সবুজ সহ কয়েক জন প্রবেশ করে তাকে এলোপাতারি মারপিট শুরু করে। এসময় তাকে দেশীয় বিভিন্ন অস্ত্র দিয়ে পিটিয়ে তার হাত ও সারা শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম করে। এ সময় তিনি ডাক-চিৎকার দিলে সন্ত্রাসীরা তাকে পিটিয়ে চলে যায়। পরে অফিসের কয়েকজন ও স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। 

পিরোজপুর সদর হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. সিকদার মাহমুদ হোসেন জানান, আহত স্কুল শিক্ষকের হাত ভেঙ্গে গেছে এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখম আছে। তাই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। 

পিরোজপুর সদর থানার ওসি এস এম জিয়াউল হক জানান, গণপূর্ত ভবনের কাজের টেন্ডারকে কেন্দ্র করে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে। তিনি নিজে হাসপাতালে গিয়ে আহত স্কুল শিক্ষকের সাথে কথা বলেছে এবং অভিযোগের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

ট্যাগ: Banglanewspaper পিরোজপুর