banglanewspaper

জবি প্রতিনিধিঃ কমলাপুরে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী টিটি কর্তৃক মারধরের শিকার হয়েছে। পরে ঘটনার প্রতিবাদ করতে গিয়ে আহত হয়েছেন আরো তিনজন।

জানা যায়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইন্জিনিয়ারিং বিভাগের ১৩তম ব্যাচের শিক্ষার্থী সাব্বির মোঙ্গলবার সকালে পরীক্ষা থাকায় তাড়াহুড়ো করে টিকেট ছাড়াই ট্রেনে উঠেন। পরে কমলাপুর নামার পর গেটে টিকিট দেখাতে না পারায় টিটি তার উপর চড়াও হন। পরীক্ষার কারনে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে টিকিট কাটতে না পারায় ভুল স্বীকার করে টিকিটের মূল্য পরিশোধ করতে রাজি হন।

কিন্তু তারপরও টিটি রহমতুল্লাহ তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন এবং শারীরিক ভাবে লাঞ্চিত করেন।

ভূক্তভোগী শিক্ষার্থী সাব্বির বলেন, আমি টিকিটের মূল্য জরিমানাসহ পরিশোধ করতে চাইলে প্রথমে প্রথমে উনি ৩৩০ টাকা ও পরে ৪৩০ টাকা দাবি করেন।আমি টাকা দিতে চাইলে এরপর তিনি আরো টাকা দাবি করেন। এক পর্যায়ে আমাকে মারধর করেন। ঘটনা ক্যাম্পাসে এসে জানালে কয়েকজন সিনিয়রসহ সন্ধ্যার পর ঘটনার প্রতিবাদ করতে গেলে টিটি রহমতুল্লাহ সহ আরো বেশ কয়েকজন মিলে তাদের উপর চড়াও হন।

এক পর্যায়ে, তিনজনকে গেটের ভেতর ঢুকিয়ে বেধড়ক মারধর করেন।

আহতরা হলেন, ১২তম ব্যাচের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগের রবিন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের আকরাম ও ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের হ্রৃদয়।বর্তমানে তারা পুরান ঢাকার সুমনা হসপিটালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর ড. মোস্তফা কামাল বলেন, তাৎক্ষনিক ভাবে কাল রাতেই আমাদের ছাত্রলীগ সভাপতি-সেক্রেটারি ও সিনিয়র ছাত্ররা রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছেন এবং রেলওয়ে কর্তৃ পক্ষও পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন। আর যদি সেটি না হয় তাহলে আমরা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যবস্থা নেবো।

ট্যাগ: Banglanewspaper কমলাপুর জবি শিক্ষার্থী