banglanewspaper

তিন বছর বয়সী মেয়েকে নিয়ে রাতে নিশ্চিন্তে ঘুমিয়েছিলেন মা। ঘুমন্ত অবস্থায়ই মাকে দংশন করে বিষধর সাপ। কিন্তু ঘুমের ঘোরে তা বুঝতে পারেননি তিনি। পরে ঘুম থেকে উঠে মেয়েকে বুকের দুধ পান করান ওই নারী। এতে বিষক্রিয়ায় আক্রান্ত হয় মেয়েটিও। শেষে হাসপাতালে নেওয়ার আগেই ওই মা-মেয়ের মৃত্যু হয়।

সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ভারতের উত্তর প্রদেশে এ ঘটনা ঘটে। ৩৫ বছরের ওই নারী বুঝতেই পারেননি তাঁকে রাতে সাপ দংশন করেছে। ঘুম থেকে উঠে তিনি তাঁর কন্যাকে বুকের দুধ পান করান। পরে মা ও মেয়ে বিষক্রিয়ায় অসুস্থ হয়ে পড়ে।

স্থানীয় পুলিশ কর্মকর্তা বিজয় সিং বলেন, হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই মা-মেয়ের মৃত্যু হয়। লাশের ময়নাতদন্ত করা হবে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হিসেবে একটি মামলা নথিভুক্ত করা হয়েছে।

এ ঘটনার পর পরিবারের সদস্যরা সাপটিকে পাশের ঘরে দেখতে পেয়েছিলেন। পরে সাপটি পালিয়ে যায়।

আমেরিকান সোসাইটি অব ট্রপিকাল মেডিসিন অ্যান্ড হাইজিন-এর ২০১১ সালের গবেষণায় দেখা গেছে, ভারতে মোট ৩০০ প্রজাতির সাপ রয়েছে। এর মধ্যে কোবরা, ক্রেইটসহ ৬০টি প্রজাতি অত্যন্ত বিষধর। সারা বিশ্বে প্রতিবছর সাপের দংশনে মৃত্যুর ঘটনা প্রায় এক লাখ। এর মধ্যে ৪৬ হাজার মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ভারতে।

ট্যাগ: banglanewspaper সাপ