banglanewspaper

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী বাজারের ইনসাফ ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় আইন উদ্দিন (৫০) নামের এক রোগী মৃত্যুর অভিযোগে লাশ নিয়ে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে অবস্থান করেছে তাঁর স্বজনেরা।

মঙ্গলবার বিকেলে আইন উদ্দিন গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। এর আগে গতকাল সোমবার রাতে তাকে চিকিৎসার জন্য বরমীর ইনসাফ ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে ভর্তি করা হলে সেখানে ভুল চিকিৎসার শিকার হন বলে দাবি করেন তাঁর স্বজনেরা। মৃত আইন উদ্দিন উপজেলার বরমী ইউনিয়নের বরামা গ্রামের মৃত আব্দুল হেকিমের ছেলে।

মৃত আইন উদ্দিনের স্বজনদের অভিযোগ, গত সোমবার রাতে তাঁর পাতলা পায়খানা শুরু হলে বরমী বাজারের কলেজ রোডে অবস্থিত ইনসাফ ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নেয়া হয়। পরে তাকে ডায়রিয়া হয়েছে মর্মে চিকিৎসা প্রদান করেন ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের চিকিৎসক মুশফিকুর রহমান পলাশ। এদিকে মঙ্গলবার সকালের দিকে তাঁর রক্ত রক্ষণ শুরু হলে আমাশয় রোগের চিকিৎসা দেয়া হয়। এতে তাঁর অবস্থায় আরো গুরুতর হয়। পরে রোগীর অবস্থা কারাব দেখে চিকিৎসক পলাশ মঙ্গলবার দুপুরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে নেয়ার এক ঘন্টাপর তার মৃত্যু হয়। এদিকে, এ মৃত্যুর ঘটনায় মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর মৃত আইন উদ্দিনের লাশ নিয়ে উপজেলা পরিষদে অবস্থান করেন তাঁর স্বজনেরা।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক মুশফিকুর রহমান পলাশের দাবি সবটুকুই তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ও সাজানো মূলক। রোগী ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলে তাকে চিকিৎসা দেয়া। পরে তাঁর স্বাস্থ্যের অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুরে রেফার্ড করা হয়। এর চেয়ে বেশী তিনি জানেন না। তবে বরমী বাজারে অবস্থিত আল আমীন ফার্মেসীর হুমায়ুন কবীর বিষয়টি সম্পর্কে বেশী জানে বলে জানান পলাশ।

আল আমীন ফার্মেসীর হুমায়ুন কবীর জানান, নিহত ব্যক্তি একটি মিলের চালক। গত সোমবার রাতে তাঁর পাতলা পায়খানা শুরু হলে তাকে ইনসাফ ডায়াগনষ্টিক সেন্টারে নেয় হয়।পরদিন সকালে আমি তার সাথে থাকা লোকদের নিকট জানি সে মোটমুটি ভাল আছে।

শ্রীপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সোহেল রানা জানান, সন্ধ্যার পর তাঁকে এ বিষয়ে জানানো হলে তিনি আইনী পদক্ষেপ গ্রহনের  পরামর্শ দেন মৃত ব্যক্তির স্বজনদের।
 

ট্যাগ: banglanewspaper শ্রীপুর