banglanewspaper

কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) সঙ্গে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের বন্ধনটা ছিল দীর্ঘ ৭ বছরের। ২০১১ সালে শুরু হওয়া বন্ধনটা ২০১৮ সালে ছিন্ন করে থেকে যোগ সানরাইজার্স হায়দরাবাদে। টাকা অঙ্গে বরাবরই বঞ্চিত ছিল এই টাইগার অলরাউন্ডার। হায়দরাবাদেও সেই একই মূল্যায়ন। ২০১১ সালে কলকাতা সাকিবকে কিনেছিল বাংলাদেশি মুদ্রায় ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকায়। আর সবশেষ হায়দরাবাদ কিনে নেয় ২ কোটি ৮০ লাখ রুপিতে। টাকার অঙ্কে যা সাড়ে তিন কোটি। 

এবারের আসরে তার দল ফাইনালে গেলেও জিততে পারেনি শিরোপা। চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে ৮ উইকেটে হারে সাকিবরা। নতুন দলে ব্যাট ও বল হাতে দারুণ ভূমিকা পালন করেছেন সাকিব আল হাসান। ১৩ ইনিংসে ২১ গড়ে ব্যাট হাতে ২৩৯ রান করেন তিনি। ছিলেন দলের সেরা পাঁচ রান সংগ্রাহক তালিকার মধ্যে। ব্যাট হাতে পাশাপাশি বল হাতেও মোটামুটি উজ্জ্বল ছিলেন এই অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার। ১৭ ম্যাচে ১৪টি উইকেট নিয়েছেন সাকিব।



সম্প্রতি আইপিএলের পারফরম্যান্স নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইএসপিএন ক্রিকইনফো। সেখানে ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সের উপর একটি মূল্য দেখিয়েছে ওয়েবসাইটটি। প্রতিবেদনে দেখা গিয়েছে সাকিবকে যে পরিমাণ অর্থ দিয়ে তাকে দলে নিয়েছে তার চেয়ে পাঁচ গুণ অর্থের পারফরম্যান্স করেছেন এই অলরাউন্ডার।

দুই কোটি রুপির সাকিব সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ফেরত দিয়েছেন ৯ কোটি রুপি! বাংলাদেশি টাকায় যা ১১ কোটি। অর্থাৎ সাকিবকে কিনে মোটেও ঠকেনি ফ্র্যাঞ্চাইজিটি। এই তালিকার সবার উপরে রয়েছেন দলটির অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। নিলামে ৩ কোটি রুপিতে তাকে দলে ভিড়িয়েছিল ফ্র্যাঞ্চাইজিটি।

আইপিএলের পারফরম্যান্সের বিচারে সেটি দাঁড়িয়েছে ১০ কোটি রুপিতে! অর্থাৎ তিন গুণ অর্থ ফেরত দিয়েছেন হায়দরাবাদকে। এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন চেন্নাইকে তৃতীয় শিরোপা এনে দেওয়া অজি ক্রিকেটার শেন ওয়াটসন। ৪ কোটি রুপি দিয়ে কেনা হয় তাকে, ১১ কোটি রুপি ফেরত দিয়েছেন এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন দলটিকে। এই তালিকায় রয়েছেন আম্বাতি রাইডু ও সুনীল নারাইন।
 

ট্যাগ: banglanewspaper সাকিব