banglanewspaper

শ্রীপুর (গাজীপুর): গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার দক্ষিণ ভাংনাহাটি গ্রামে কাঁঠাল পাকা কিনা দেখতে টোকা দেয়ার অপরাধে ৬ বছর বয়সী হাসিব নামের এক শিশুর প্রতি নির্মম নির্যাতন করে আহত করেছে বলে জানিয়েছে শিশুটির পরিবার।যদিও স্থানীয়দের অনুরোধে শিশুটির পিতা অভিযুক্তকে ক্ষমা করে দিয়েছেন বলে  সাংবাদিকদের জানান।

ঘটনাটি রোববার দুপুরের, অভিযুক্ত শাহজাহান (৬০) পৌর এলাকার দক্ষিণ ভাংনাহাটি গ্রামের মৃত আকরাম উদ্দিনের ছেলে। শিশুটির পিতা হাবিবুল্লাহ্র বাড়ি ময়মনসিংহ জেলার পাগলা থানার বাড়ইহাটি গ্রামে। সে পৌর এলাকার মনির হোসেনের বাড়ীতে ভাড়া থেকে পার্শ্ববর্তী হ্যামস্ গার্মেন্টস্ নামের কারখানার সামনে কাঁচামাল বিক্রি করেন। 

নির্যাতিত শিশুর পিতা জানান, সে কিছুদিন আগে দক্ষিণ ভাংনাহাটি গ্রামের শাহজাহানের বাড়ির পাশে ছেলে সন্তান নিয়ে ভাড়া থাকতেন। সম্প্রতি সে সেখান থেকে হ্যামস্ কারখানার সামনে মনির হোসেনের বাড়ীতে এসে উঠে। এখানে কাঁচামাল বিক্রি করেন। রোববার দুপুরে তাঁর ছেলে হাসিব পুরাতন বাড়ির এলাকায় খেলতে যায়। সে সময় শাহজাহানের মালিকানাধীন একটি কাঁঠাল গাছে লাঠি দিয়ে টোকা দেয়। আর এ অপরাধে শাহজাহান তাকে গলায় রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করেছে । এতে তাঁর গলায় নীলাফুলা জখম হয়। সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে শ্রীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়ীতে নিয়ে আসা হয়। পরে শাহজাহানের ভাইসহ স্থানীয় কয়েকজন বাড়ীতে এসে ক্ষমা প্রার্থনা করলে তিনি ক্ষমা করে দেন বলে জানান।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত শাহজাহানের সাথে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাঁর বক্তব্য নেয়া সম্ভব হয়নি।

তবে শ্রীপুর থানার পরিদর্শক (অপারেশন) হেলাল উদ্দিন জানান, এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত থানায়  কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করেননি। অভিযোগ পেলে যথাযথ আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ট্যাগ: banglanewspaper শ্রীপুর