banglanewspaper

স্বাধীনতার পর ৪৭ অর্থবছরের ইতিহাসে এটিই হচ্ছে সবচেয়ে বড় বাজেট। সবশেষ প্রাপ্ত হিসাবে ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পেশ করা হতে পারে। এটি দেশের ৪৮তম বাজেট। এই বাজেট  উপস্থাপনের মধ্যে দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত যেমন নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করতে যাচ্ছেন, তেমনি রেকর্ড গড়তে যাচ্ছে বর্তমান সরকারি দল আওয়ামীলীগও ।

একক দল হিসেবে আওয়ামী লীগ সর্বোচ্চ ২০টি বাজেট পেশের অনন্য রেকর্ড করতে যাচ্ছে। বাংলাদেশের আর কোন রাজনৈতিক দল এতো বেশি বাজেট উপস্থাপন করতে পারেনি। এছাড়া টানা ১০টি বাজেটও দিতে পারেনি আর কোনও সরকার।

অন্যদিকে অর্থমন্ত্রীর এটা ১২তম এবং টানা দশম বাজেট উপস্থাপন। এই বাজেট উপস্থাপনের মধ্যে দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত প্রয়াত অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের সঙ্গে এক কাতারে চলে আসছেন। সমসংখ্যক ১২টি বাজেট উপস্থাপন করেছিলেন বিএনপি সরকারের অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানও।

তবে একটানা দশম বাজেট উপস্থাপন করতে যাচ্ছেন আবুল মাল আবদুল মুহিত। যা এম সাইফুর রহমানের পক্ষে করা সম্ভব হয়নি। ফলে বাংলাদেশের বাজেট ইতিহাসে নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙতে চলেছেন এই অশিতিপর অর্থমন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী হিসেবে আবুল মাল আবদুল মুহিত সংসদে প্রথম বাজেট পেশ করেন ১৯৮২-৮৩ অর্থবছরে। সেটি ছিল সামরিক শাসক এরশাদের আমলের অর্থমন্ত্রী হিসেবে। এরপর আরো একটি বাজেট পেশ করেন তিনি।

আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট সরকারের অর্থমন্ত্রী মুহিত ২০১০-১১ অর্থবছরে এক লাখ ৩২ হাজার ১৭০ কোটি টাকার বাজেট দিয়ে যাত্রা শুরু করেছিলেন। আসছে অর্থবছরের পরিমাণ চার লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

অন্যদিকে, ১৯৮২-৮৩ অর্থবছরে মাত্র চার হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা ও ১৯৮৩-৮৪ অর্থবছরের পাঁচ হাজার ৮৯৬ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেন মুহিত। আর ২০১৮-১৯ অর্থবছরে পেশ করবেন চার লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট।

এ ছাড়া নবম জাতীয় সংসদে আওয়ামী লীগ সরকারের অর্থমন্ত্রী হিসেবে পূর্ণ মেয়াদে পাঁচ বছরে পাঁচটি বাজেট পেশ করেন আবুল মাল আবদুল মুহিত। এরপর দশম জাতীয় সংসদে এরই মধ্যে প্রথম বছরের বাজেট তার হাত দিয়ে পেয়েছে দেশের জনগণ।

ট্যাগ: banglanewspaper বাজেট