banglanewspaper

মোস্তাফিজুর রহমান, বরগুনা: বরগুনায় ৫ বছরের শিশু ধর্ষণের অভিযোগে গৃহশিক্ষক নাইম (১৫) নামের এক ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ৭ জুন বৃহস্পতিবার শহরের উপকণ্ঠে সোনালী পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। শিশুটিকে বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিশুটির মা জানান, এ বছর তার মেয়েকে স্থানীয় একটি স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে ভর্তি করা হয়েছে। এর থেকে ওই এলাকার বাসিন্দা দুলালের ছেলে নাইম মাসখানেক ধরে তার মেয়েকে বাসায় এসে পড়াতো। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার পড়ানোর জন্য নাইম বাসায় আসে। তিনি গোসল করতে গেলে এ সুযোগে নাইম ওই শিশুটিকে ধর্ষণ করে। এ সময় মেয়ের চিৎকার শুনে তড়িঘড়ি করে তিনি বাথরুম থেকে বের হয়ে আসেন। শিশুটি মাকে জড়িয়ে ধরে চিৎকার করে কান্না শুরু করে।

এর পর নাইম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কাউকে না জানাতে অনুরোধ করে। পরে তিনি তার মেয়েকে চিকিৎসার জন্য বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করান।

হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার মোহাম্মদ আল্লামা তালুকদার বলেন, প্রাথমিকভাবে শিশুটিকে ধর্ষণের সত্যতা মিলেছে। তাকে যথাযথ চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। খবর পেয়ে পুলিশ হাসপাতালে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসকের কাছে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হয়ে সন্ধায় নিজ বাড়ি থেকে ধর্ষক নাইমকে গ্রেফতার করে।

বরগুনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদুজ্জামান বলেন, ওই শিশুটিকে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে নাইম। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ট্যাগ: Banglanewspaper বরগুনা শিশু ধর্ষণ গৃহশিক্ষক