banglanewspaper

অস্ট্রিয়ার সরকার দেশটির সাতটি মসজিদ বন্ধ করে দেবে। পাশাপাশি ৬০ ইমামকে দেশটি থেকে বের করে দেয়ার বিষয়ে খতিয়ে দেখছে বলেও জানিয়েছে। কথিত রাজনৈতিক ইসলাম এবং বিদ্বেষপূর্ণ বক্তব্যের বিরুদ্ধে পরিচালিত অভিযানের নামে এ সব পদক্ষেপ নেয়ার দাবি করা হচ্ছে।

আজ(শুক্রবার) যৌথ সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর সেবাটিয়ান কুর্টস দাবি করেন, দেশটিতে রাজনৈতিক ইসলামের কোনো স্থান নেই। যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কুর্টসের সঙ্গে ছিলেন দেশটির ভাইস চ্যান্সেলর। এ ছাড়া দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের মন্ত্রীরা এতে অংশ নেন।

দেশটিতে যে সাত মসজিদ বন্ধ করে দেয়ার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে তার মধ্যে তিনটিই রয়েছে ভিয়েনায়। এ সব মসজিদের কোনো কোনোটির ওপর তুরস্কের ডানপন্থি সংস্থা তথাকথিত 'গ্রে উলফের' প্রভাব রয়েছে থাকার অজুহাত দিচ্ছে ভিয়েনা সরকার।

অস্ট্রিয়ার তুর্কি ইসলামিক ইউনিয়ন বা এটিআইবি নিয়োগপ্রাপ্ত ৬০ ইমামের রেসিডেন্স পারমিটও পর্যালোচনা করছে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হের্বাট কিকেল।

এর আগে দেশটিতে কথিত 'সমান্তরাল সমাজ' গড়ে তোলার প্রচেষ্টার অজুহাতে তুলে শিশু এবং প্রাথমিক শ্রেণির ছাত্রীদের মাথায় কাপড় দেয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে অস্ট্রিয়া সরকার।#    

ট্যাগ: bdnewshour24 অস্ট্রিয়া মসজিদ