banglanewspaper

ফুটবল বিশ্বকাপ  ক্রীড়া দুনিয়ার সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহ্যশালী এই প্রতিযোগিতায় চাপ থাকে অফুরান। আর সেই চাপ কমাতে অনেক সময়ই নারীসঙ্গ করেন ফুটবলাররা। সেই অবস্থায় সামনে এল সেক্স থেরাপিস্ট ড. ভেরা রিবেরিও-র দেওয়া সামান্য ‘অন্য’ পরামর্শ। ভেরার অবশ্য আরও একটি যোগসূত্র রয়েছে বিশ্বকাপের সঙ্গে। তিনিই পর্তুগালের গোলকিপার রুই প্যাটরিসিও-র স্ত্রীও।

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ‘দ্য সান’-এ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যাচ্ছে, ভেরা সম্প্রতি জানিয়েছেন, পারফরম্যান্সের উন্নতির জন্য মনঃসংযোগ বাড়াতে সরাসরি যৌনতার দিকে না গিয়ে স্বমেহনের পথ বেছে নিক ফুটবলাররা। তাতেই পারফরম্যান্সে উন্নতি হবে বলে মত ভেরার। 

ভেরা একটি বই লিখেছেন যার নাম ‘ম্যানুয়াল অফ সিডাকশন’। সেখানে তিনি জানিয়েছেন, অবসাদের সঙ্গে যুঝতে খেলোয়াড়রা স্বমেহন করলে ভাল ফল পাবেন।

ক’দিন আগেই ব্রাজিলের জাতীয় ফুটবল দলের চিকিৎসক রডরিগো লাসমার জানিয়েছিলেন, ‘‘যৌনতা কখনও কখনও খুবই স্বাভাবিক। আমাদের দলে তরুণ ও স্বাস্থ্যবান খেলোয়াড়েরা রয়েছে। তাই চাপ কমাতে ও রিলাক্স করার জন্য তারা এই পথ বেছে নেবে এটা অত্যন্ত স্বাভাবিক।’’

লাসমারের মতের থেকে ভিন্ন একটি মত প্রকাশ করলেন ভেরা। তবে দু’জন দু’রকম কথা বললেও বিশ্বকাপের মতো বড় মাপের প্রতিযোগিতার মেগা চাপ কমাতে যৌনতা যে একটা বড় অবলম্বন হতে পারে খেলোয়াড়দের, সেটা দু’জনেই মেনে নিয়েছেন।

ট্যাগ: bdnewshour24 ফুটবল বিশ্বকাপ