banglanewspaper

র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজির আহমেদ জানিয়েছেন, সুন্দরবনের জলদস্যুদের জন্য অনন্তকাল অপেক্ষা করবো না, টাইম লাইন অক্টোবর। যারা নিজ ইচ্ছায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে আত্মসমর্পণ করবেন তারা বেঁচে যাবেন। অন্যথায় র‌্যাব তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব পালন করবে।

 

মঙ্গলবার দুপুরে বরিশাল র‌্যাব- ৮ সদর দপ্তরে আত্মসমর্পণ করা জলদস্যুদের মাঝে ঈদসামগ্রী বিতরণ ও পুনর্বাসন প্রকল্প উদ্ধোধনকালে তিনি এসব কথা জানান।

 

তিনি আরো জানান, জলদস্যুদের বিরুদ্ধে দায়ের করা হত্যা ও ধর্ষণ মামলা বাদে বাকি মামলাগুলো প্রত্যাহার করার ব্যবস্থা করা হবে। যারা নিরীহ লোকদের উসকানি দিয়ে পানিতে নামিয়ে এই জলদস্যুর কাজে লিপ্ত করেছে তারাও রেহাই পাবে না।

 

ইতিমধ্যে ২৩টি গ্রুপ ২৫০ লোক আত্মনসমর্পন করেছে উল্লেখ করে বেনজির আহমেদ বলেন, আত্মসমর্পণকারী প্রত্যেকেই বর্তমানে ভালো আছেন। তাই এখনো যারা সুন্দরবনে জলদস্যু বনদস্যুতায় জড়িত রয়েছেন তারা দ্রুত ধরা দেন। এই অঞ্চলের শাস্তি প্রতিষ্ঠা যাতে হয় এবং জাতীয় সম্পদ যাতে রক্ষা পায় তার সুব্যবস্থা নেব।

 

অনুষ্ঠানে র‌্যাব- ৮ এর পরিচালক অতিরিক্ত ডিআইজি আতিকা ইসমলামের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন র‌্যাবের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) মো. আনোয়ারুল লতিফ, র‌্যাবের মিডিয়া কর্মকর্তা মুফতি মাহমুদ, বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার, বরিশাল জেলা প্রশাসক মো. হাবিবুর রহমান, নগর পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কমিশনার মো. মাহফুজুর রহমান, রেঞ্চ পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজ মো. আজাদ, জেলা পুলিশ সুপার মো. সাইফুল ইসলাম, মহিলা টিটিসির অধ্যক্ষ মো. সাজ্জাদুল ইসলাম।

ট্যাগ: banglanewspaper বেনজির আহমেদ