banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিনিধি: রূপসজ্জায় নকল প্রসাধনী ব্যবহারের অভিযোগে নামকরা বিউটি পার্লার পারসোনাকে জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। রাজধানীর ধানমন্ডি ২৭ নম্বরে ছেলে ও মেয়েদের পৃথকভাবে প্রতিষ্ঠিত পার্লারটিতে বিভিন্ন অভিযোগে চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার বিউটিশিয়ান কানিজ আলমাস খান।

মঙ্গলবার দুপুর দুইটার দিকে এই অভিযানে ওই এলাকার আরও একটি পার্লারকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

অভিযান তদারকি করেন অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার এবং অভিযান পরিচালনা করেন সহকারী পরিচালক রজবী নাহার রজনী। সহযোগিতায় ছিল আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান।

অভিযান শেষে উপ-পরিচালক মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘পারসোনা রূপসজ্জায় যেসব প্রসাধনী ব্যবহার করছে ধরে নিলাম সবই বিদেশি। কিন্তু বিদেশি হলেও দুটি সমস্যা সেখানে দেখা গেছে। এর মধ্যে একটি পণ্যের গায়ে বাংলা বা ইংরেজি কোনো ভাষাতেই লেখা নেই। অন্য একটি ভাষায় লেখা যা তারা নিজেরও জানে না কোন দেশি পণ্য। তাই এটা অরজিনাল কি ভেজাল সেটা চিহিৃত করা দুরূহ ব্যাপার। আর দ্বিতীয়টি হলো বিদেশি পণ্য হলে অবশ্যই তা কেউ আমদানি করে আনবে। আর সেখানে আদমাদিকারক প্রতিষ্ঠানের একটি স্ট্রিকার থাকার কথা। কিন্তু তাদের পণ্যের গায়ে এ ধরনের কোনো তথ্য দেওয়া ছিল না। ফলে সেটা আমরা ধরে নেব ভ্যাট ট্রাক্স ফাঁকি দিয়ে আনা অথবা লোকাল তৈরি করে তারা বলছে এটা বিদেশি। তাই এটা ভেজালও হতে পারে। এসব অভিযোগে তাদের দুটি প্রতিষ্ঠানকে (ম্যান ও উইমেন) তিনটি ধারায় চার লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।’

একই অভিযোগে এসময় ধানমন্ডির ‘ফারজানা শাকিল পার্লার’কে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

মনজুর মোহাম্মদ বলেন, নামকরা বিউটি পার্লার পারসোনা রূপসজ্জায় নকল প্রসাধনী ব্যবহার করছে এটা মানা যায় না। একই সঙ্গে দেশে তৈরি নকল ও ভেজাল পণ্যকে বিদেশি পণ্য বলে গ্রাহকের সঙ্গে তারা প্রতারণা করে আসছিল। এমনিক ত্বকের জন্য ক্ষতিকর মেয়াদোত্তীর্ণ প্রসাধনী ব্যবহার করছিল মানুষের আস্থা ও বিশ্বাসকে পুঁজি করে। আর তারই সবই বাড়তি মুনাফার লোভে।

এসময় অভিযান দল দুটি কফি সপে গিয়ে কফির গায়ে মূল্য তালিকা বা উৎপাদন তালিকা না থাকায় এক লাখ টাকা জরিমানা করে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারা প্যাকেটজাত বিধিমালা ভঙ্গ করা পণ্য বিক্রি করত। এর মধ্যে পণ্যের গায়ে মেয়াদ বা উৎপাদনের তারিখ, উপাদান, ব্যবহারবিধি, ক্রয় বিক্রয় মূল্য কোনো কিছুই ছিল না।

ট্যাগ: পারসোনা জরিমানা