banglanewspaper

মনির হোসেন জীবন, নিজস্ব প্রতিনিধি: ঈদ মানেই খুশি-ঈদ মানেই আনন্দ। আর এ আনন্দ পরিপূর্ণতা পায় প্রিয়জনের সাথে যদি ঈদের সময়টুকু কাটানো যায়। তাই পরিবার-পরিজন ও প্রিয়জনদের সাথে ঈদের আনন্দকে ভাগাভাগি করতে প্রতিবছরই ঈদে বাড়ি ফেরেন রাজধানী ও এর আশেপাশে থাকা অসংখ্য মানুষ।

এবারের ঈদেও তেমনি ঘরমুখো মানুষের উপচে পড়া ভীড় লক্ষ্য করা গেছে চন্দ্রা-নবীনগর মহাসড়কের বাইপাইল ও গাজীপুরের কালিয়াকৈরের ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের চন্দ্রা ত্রিমোড় এলাকা।

সকাল থেকেই এ দু’টি পয়েন্টে ঈদে ঘরমুখো মানুষের ভীড় বাড়তে থাকতে। এরই মধ্যে বেশিরভাগ শিল্প-কারখানায় ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে বেলা বাড়ার সাথে ঘরমুখো মানুষের ভীড় এখন স্রোতে পরিণত হয়েছে। যে যেভাবে পারছে সেভাবে বিভিন্ন যানবাহনে উঠে পড়ছে। উদ্দেশ্য একটাই পৌঁছাতে হবে প্রিয়জনের কাছে। নানা কষ্ট সহ্য করেই আশপাশের বিভিন্ন এলাকা থেকে জড়ো হচ্ছে এসব স্থানে। 

আর ঘরমুখো মানুষের এ স্রোত সামলাতে রীতিমত বেগ পেতে হচ্ছে পরিবহন শ্রমিক, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের। তবে সবকিছু মিলিয়ে সড়কে যানজট না থাকলে এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক হবে বলে জানালেন এবার ঈদে ঘরে রংপুরের মিঠাপুর এলাকার মজিবুর রহমান। 

তবে অনেক যাত্রী অভিযোগ করেছে ঈদকে সামনে রেখে পরিবহন শ্রমিকরা বাড়তি ভাড়া আদায় করছে। আর বাড়তি ভাড়া নেয়ার বিষয়ে তেমন কোন ফলপ্রসু উত্তর দিতে পারেনি পরিবহন সংশ্লিষ্ট কেউই। 

সব মিলিয়ে সকল ঝামেলা মিটিয়ে প্রিয়জনদের সাথে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে পারবে এটাই সবার প্রত্যাশা।

ট্যাগ: Banglanewspaper ঘরে ফেরা বাইপাইল-চন্দ্রা