banglanewspaper

নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি ঃ নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলাধীন গাংরা গ্রামে সরকারি ইসিভুক্ত জমিতে (পিরোত্তর) ঈদগাহ মাঠ সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

জানা যায় গত ১৫ জুন  গাংরা  গ্রামের  সরকারি ইসি ভুক্ত জমিতে জোর পূর্বক দখল করে সেখানে অস্থায়ী ঈদগাহ মাঠ নির্মাণ করেন গাংরা গ্রামের ডাঃ মাজেদুর রহমান চৌধুরী ও তার অনুসারীরা।এবং দীর্ঘদিনের পুরাতন ঈদগাহ গাংরা ইসলামীয়া মহিলা মাদ্রাসা ঈদগাহ ময়দানে নামাজ পড়তে বাঁধা দেয় এবং প্রচার ভ্যনে  থাকা প্রচারকারীকে মারধর করে নামাজ পুরাতন ঈদগাহে হবেনা মর্মে ঘোষণা দিতে বাধ্য করে।

এ খবর জানাজানি হলে উভয় পক্ষে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। পরে বিষয়টি নিয়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হলে উপজেলা প্রশাসন অবৈধভাবে গড়ে তোলা সরকারী জমিতে ঈদগাহ জামায়েত ও অবৈধ সমাবেশ এর উপর নিষেধাজ্ঞা জারী করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভুইয়া  ।পরে পুলিশ পহরায় গাংরা ইসলামীয়া মহিলা মাদ্রাসা মাঠে নামাজ সম্পন্ন হয়।

ডাঃ মাজেদুর  রহমানের বিরুদ্ধে এর আগে বিভিন্ন মানুষের জমি দখল,চাদাবাজি, মারপিট সহ প্রায় একাধীক মামলা রয়েছে বলে জানা যায়। ডাঃ মাজেদুর রহমান পঞ্চগড় জেলার আটোয়ারি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিএইচ ও হিসেবে কর্মরত।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভুইয়া বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, “ একটি ঈদগাহ মাঠ নিয়ে  উত্তেজনা চলছিল। সেখানে প্রশাসনের পক্ষ থেকে ১৪৪ ধারা জারী করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে”।

এ বিষয়ে গাংরা মাদ্রাসার ঈদহাগ কমিটির সভাপতি ও পীরোত্তর জমিটির মোতওয়াল্লী আব্দুল কুদ্দুস চৌধুরী বলেন, গ্রামে একটি বড় মাদ্রাসা ও ঈদহাগ ময়দান থাকার পরেও পীরোত্তর মাদ্রাসার জমিটির উপর ঈদগাহ নির্মাণ আসলে পীর ইমামের নামে থাকা ২ একর ৭৬ শতাংশ জমি অবৈধ দখলের চক্রান্ত মাত্র।

বর্তমানে পরিস্থিতি  স্বাভাবিক রয়েছে তবে যে কোন সময় বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে।

 

ট্যাগ: banglanewspaper ১৪৪ ধারা জারি