banglanewspaper

স্টাফ রিপোটার : কুমারখালী উপজেলার কবুরাট আবাসন সংলগ্ন গড়াই নদী থেকে লিটন শেখ (১৯) নামের এক যুবকের ভাসমান লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ লিটনের ৪ বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। 
আজ সোমবার সকাল ৭টার দিকে কবুরাট আবাসন সংলগ্ন গড়াই নদী থেকে এ লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 


কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আব্দুল খালেক জানান, গত শনিবার ঈদের দিন সন্ধায় লিটনসহ তার ৭বন্ধু মিলে একই উপজেলার কয়া গ্রাম সংলগ্ন গড়াই নদীতে নৌকা ভ্রমনে যায়। এ সময় তারা এ্যালকোহলযুক্ত তুসকা সিরাপ ও ডিসপ্রিন্ট ২ ট্যাবলেট ও অনন্য জিনিসপত্র মিশিয়ে মাদক তৈরি করে সেবন করে।

সে দিন রাতে সব বন্ধু বাড়ী ফিরলেও লিটন বাড়ী ফেরেনী। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন জায়গায় খোজাখুজি করলেও তার সন্ধান মেলাতে পারেনী। আজ সকালে স্থানীয়রা কবুরাট আবাসন সংলগ্ন গড়াই নদীতে একটি লাশ ভাসতে দেখে পুলিশকে জানালে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্ত করতে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

এদিকে ঘটনার সময় নৌকায় থাকা তার ৪ বন্ধুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ থানায় নিয়ে যায়। নিহতের পিতা জানান, তার ছেলেকে ষড়যন্ত্র করে হত্যা করা হয়েছে। তিনি খুনিদের বিচার চান। নিহত লিটন কুমারখালীর কয়া ইউনিয়নের রাধানগর গ্রামের কাবিল শেখের ছেলে।

ট্যাগ: banglanewspaper কুমারখালী