banglanewspaper

স্পোর্টস ডেস্ক: ক্রোয়েশিয়ার কাছে হেরে রাশিয়া বিশ্বকাপের আসর থেকে ছিটকে পড়ার শঙ্কায় আর্জেন্টিনা। এমন হারে পুরো উলট-পালট রেকর্ড বইয়ের সব ইতিহাস। বিশ্বকাপের ইতিহাসে মূল পর্বে এমন ভাবে কখনো হারেনি ল্যাটিন আমেরিকার দলটি।  

এছাড়া দলের সেরা তারকা লিওনেল মেসি দুই ম্যাচে কোনো গোল করতে পারেননি। এমনকি আইসল্যান্ডের সাথে একটি পেনাল্টিও মিস করেছেন। ২০০২ এর পর প্রথমবার বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নেয়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে আর্জেন্টিনার।

শেষ কবে ছিল এমন হার?

ক্রোয়েশিয়ার কাছে ৩-০ গোলে হারে আর্জেন্টিনা। গ্রুপ পর্বে এত বড় হার শেষ কবে এসেছিল আর্জেন্টাইন ফুটবল ইতিহাসে?

১৯৫৮ সালে সর্বশেষ গ্রুপ পর্বে এমন হারের লজ্জা পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। সেই ম্যাচে চেকোস্লোভাকিয়ার কাছে ৬-১ গোলে হেরেছে তারা। এরপর এতটা সময় পর গতকাল ক্রোয়েশিয়ার কাছে আবার নতুন আরেক লজ্জার ইতিহাসের জন্ম দিল আকাশী নীলরা।

টানা জয়হীনতা

বিশ্বকাপের ইতিহাসে টানা চার ম্যাচে জয়হীন টিম আর্জেন্টিনা। গেল বিশ্বকাপের সেমি-ফাইনাল কাটিয়ে উঠেছে টাইব্রেকারে। ফাইনাল মঞ্চেও ছিল জয়হীন। আর এই আসরের শুরুর টানা দুই ম্যাচেই। সব মিলিয়ে বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মত টানা চার ম্যাচে জয়হীন আর্জেন্টিনা।

গ্রুপ পর্বে বাদ হওয়ার ব্যর্থতা

আর্জেন্টিনার ফুটবল ইতিহাসে কেবল তিন বার গ্রুপ পর্ব পার করতে পারেনি তারা। যেটা ছিল ১৯৫৮ সাল, ১৯৬২ এবং ২০০২ সালে। নতুন ইতহাস জন্ম দিতে এবারও সেই পথেই হাটছে আর্জেন্টিনা।

মেসির ব্যর্থতার ৬৪৭ মিনিট

আর্জেন্টিনার জার্সিতে বিশ্বকাপের দলের সেরা তারকা গোল পেয়েছেন শেষ গেল বিশ্বকাপে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে। এরপর ৬৪৭ মিনিট ধরে আর কোন গোলের মুখ এখনো দেখেননি এই তারকা। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে সেই ম্যাচে জোড়া গোলের পরে এখনো ব্যর্থ পাঁচবারের বিশ্বসেরা খেলোয়াড়।

ট্যাগ: Banglanewspaper রেকর্ড বই আর্জেন্টিনার লজ্জা