banglanewspaper

আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলোতে হারলেই আমরা ক্ষমতা হারাবো না। হারলেই আমাদের ইজ্জত চলে যাবে না। নির্বাচনে জিততে গিয়ে যেন দলের কোনোরকম বদনাম না হয়।

শুক্রবার (২২ জুন) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করার পর প্রার্থীদের উদ্দেশে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এবারের ফুটবল খেলায় দেখতে পাচ্ছেন, যারা জেতার কথা তারা জিতছে না, গোলই দিতে পারে না। এটা রাজনীতিতেও হতে পারে। নির্বাচনগুলোতে হারলেই যে আমাদের সিট চলে যাবে বা ক্ষমতা হারাব সেটা নয়। তেমনি হারলে ইজ্জত চলে যাবে সেটাও না।’

শেখ হাসিনা আরও বলেন, ‘আমরা নির্বাচনে জনগণের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ করে দিয়ে নির্বাচন পদ্ধতিতে শৃঙ্খলা এনেছি। আমরা চাই না, ১৯৯৬ সালের ১৫ ফেব্রুয়ারির মতো নির্বাচন হোক। নির্বাচন ঠেকাতে তারা ২০১৪ সালে মানুষ পুড়িয়েছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুড়িয়েছে। ২০১৫ সালে তারা আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা করেছে। আন্দোলনের নামে মানুষ খুন করে তারা সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ সৃষ্টি করে গেছে। আমরা চাই না সেই পরিবেশ আর থাকুক। আমরা বাংলাদেশকে শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাই।’

সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন, সিলেট সিটির সাবেক মেয়র বদরউদ্দিন আহমদ কামরান এবং বরিশাল সিটি করপোরেশনে দলের কেন্দ্রীয় নেতা আবুল হাসনাত আবদুল্লাহর ছেলে সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহকে দলের মনোনয়ন দেওয়া হয়।

আর কুড়িগ্রাম-৩ উপ নির্বাচনে এম এ মতিনকে মনোনয়ন দেওয়া হয়। এছাড়াও ১০টি ইউনিয়ন, ৩টি উপজেলা ও ৫ পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়।

আগামী ৩০ জুলাই রাজশাহী, বরিশাল ও সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

ট্যাগ: banglanewspaper  শেখ হাসিনা