banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর): গাজীপুরের শ্রীপুরে এক নারী কারখানা শ্রমিককে জবাই করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনার পর থেকে পালিয়েছে স্বামী শামীম আহমেদ। নিহত ঝুমা আক্তার  আল্লাদি (২০) ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার বনগাঁও গ্রামের আহম্মদ আলীর মেয়ে এবং উপজেলার মুলাইদ এলাকার বদর স্পিনিং মিল কারখানার শ্রমিক।

শনিবার মধ্য রাতে মুলাইদ এলাকার (মাজমআলী মোড়) আনিছুর রহমানের বাড়িতে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনা সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।   

ঘাতক স্বামী শামীম আহমেদে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার কুমারুলী গ্রামের আব্দুল আজিজের ছেলে এবং পাশের রঙ্গীলা বাজার এলাকার আনোয়ারা নীট কম্পোজিট কারখানায় শ্রমিকের কাজ করতো।

এলাকাবাসী ও বাড়ির মালিকের বরাত দিয়ে শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, প্রায় এক বছর আগে শামীম তার স্ত্রী ঝুমাকে নিয়ে উপজেলার মুলাইদ এলাকার (মাজমআলী মোড়) আনিছুর রহমানের বাড়ি ভাড়া নেয়।

স্বামী-স্ত্রী উভয়েই ঈদের ছুটি শেষে গত শুক্রবার (২২জুন) বাড়ি থেকে শ্রীপুরের ভাড়া বাড়িতে আসে। শনিবার সন্ধ্যায় তারা অফিস থেকে এসে ঘরের কাজ শেষে ঘুমিয়ে পড়ে। পরে রাত তিনটার দিকে মাজম আলী মোড়ের নিরাপত্তা কর্মী আব্দুস সাত্তার শামীমকে ব্যাগ হাতে নিয়ে চলে যেতে দেখলে তার সন্দেহ হয়।

পরে তাকে (শামীম) জিজ্ঞাসা করলে সে ব্যাগ রেখে প্রাকৃতিক কাজ সেড়ে আসার কথা বলে পালিয়ে যায়। নিরাপত্তাকর্মী বাড়ির মালিককে জানালে হত্যার ঘটনা প্রকাশ পায়। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

তবে কি কারনে স্ত্রী ঝুমা আক্তারকে জবাই করে হত্যা করা হয়েছে তা জানা সম্ভব হয়নি বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।
 

ট্যাগ: banglanewspaper শ্রীপুর