banglanewspaper

জয়পুরহাট প্রতিনিধি: জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল উপজেলার বড়তারা এলাকায় যশোর থেকে এক নারীকে বিয়ের প্রলোভনে ডেকে এনে গণধর্ষন করেছে ওই এলাকার কয়েকজন যুবক। মেয়েটি তাদের হাত থেকে পালিয়ে এসে থানায় আশ্রয় নেয়। পরে পুলিশের সহযোগিতায় মেয়েটিকে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে এবং শুক্রবার রাতে থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আকরাম হোসেন জানান, ক্ষেতলাল উপজেলার বড়তারা গ্রামের যুবক মুকুল হোসেন যশোরের নিউ মার্কেট বি ব্লকের সিটু মিয়ার মেয়ে জহুরা বেগুম (২৮) এর সাথে নয় মাস ধরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রেমের সর্ম্পক গড়ে তুলে বিয়ের প্রলোভনে তার গ্রামে ডেকে আনে। এরপর গেল  বুধবার  রাতে ওই গ্রামের মাঠে গভীর নলকুপের ঘরে আটকে রেখে মেয়েটির ওপর পালাক্রমে ধর্ষন চালায় ওই গ্রামের আরও ছয়জন যুবক। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মেয়েটি কৌশলে তাদের হাত থেকে পালিয়ে ক্ষেতলাল থানায় আশ্রয় নেয়। পরে মেয়েটিকে গুরুতর অবস্থায় জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করান।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতেই জহুরা বেগুম বড়তারা গ্রামের আছির উদ্দিনের ছেলে মুকুল, মৃত আব্বাস আলীর ছেলে ইদ্রিস, মৃত প্রানকন্ঠ মালীর ছেলে লালন চৌকিদার ও তারাকুল গ্রামের মহির উদ্দিনের ছেলে জহির নাম উল্লেখ করে আরো ৩জনকে অজ্ঞাত করে ক্ষেতলাল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।  তবে এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।
 

ট্যাগ: banglanewspaper জয়পুরহাট