banglanewspaper

স্পোর্টস ডেস্ক: র্বিশ্বকাপে মঙ্গলবার তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ একটি ম্যাচ উপভোগ করল ফুটবলেপ্রমীরা। জমজমাট লড়াইয়ের ম্যাচে শেষ হাসি হাসল সুইডেন। দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচে সুইজারল্যান্ডকে ১-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল সুইডিশরা। 

আর বিদায় নিলো সুইজারল্যান্ড। ম্যাচের একমাত্র গোলটি করেছেন এমিল ফোর্সবার্গ। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন সুইজাল্যান্ডের ল্যাং। ম্যাচ সেরা হন ফোর্সবার্গ।

সেইন্ট পিটার্সবার্গ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচটিতে প্রথমার্ধ শেষ হয় জমজমাট লড়াইয়ে। কিন্তু গোলের দেখা পায়নি কোনো দল। গোলশূন্য সমতায় থেকে বিরতিতে যায় দুই দল। প্রথমার্ধে দুই দলই আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলেছে। বারবার আক্রমণে গিয়েছে। লড়াই হয়েছে সমানে সমান। কিন্তু কোনো দলই কাঙ্ক্ষিত গোলের দেখা পায়নি।

বিরতির পরও দুই দলই ছিল সমানে সমান। কিন্তু ম্যাচের ৬৬তম মিনিটে ১-০ গোলে এগিয়ে যায় সুইডেন। ডি-বক্সের সামনে থেকে গোলপোস্ট লক্ষ্য করে শট নেন এমিল ফোর্সবার্গ। বলটি সুইজারল্যান্ডের ডিফেন্ডার ম্যানুয়েল আকানজি পায়ে লেগে হালকা দিক পরিবর্তন হয়ে পৌঁছে যায় জালে।

এরপর সুইজারল্যান্ড ম্যাচে ফেরার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করেছে। ৭৯তম মিনিটে ম্যাচে সমতা আনতে পারতো সুইজারল্যান্ড। কিন্তু সুইডেনের গোলরক্ষক ও ডিফেন্ডারদের দৃঢ়ভাবে সুইজারল্যান্ডের সেই আক্রমণ রুখে দেন। (৯০+১) মিনিটে আবারও গোলের সম্ভাবনা তৈরি করে করে সুইজারল্যান্ড। কিন্তু সুইডিশ গোলরক্ষক সুইজারল্যান্ডের সেই চেষ্টা সফল হতে দেননি।

(৯০+৩) মিনিটে ২-০ গোলে এগিয়ে যেতে পারতো সুইডেন। সুইজারল্যান্ডের রক্ষণ অঞ্চল ফাঁকা পেয়ে ঢুকে পড়েছিলেন ওলসন। কিন্তু এমন সময় ডি-বক্সের সামান্য সামনে থেকে ওলসনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন মাইকেল ল্যাং। ওলসনকে ফাউল করার কারণে মাইকেল ল্যাংকে লাল কার্ড দেখান রেফারি। পেনাল্টি পেতে পারতো সুইডেন। 

কিন্তু রেফারি ভিএআর এর সহায়তা নিয়ে দেখেন ফাউলটি করা হয় ডি-বক্সের সামান্য সামনে থেকে। তাই তিনি ফ্রি-কিকের সিদ্ধান্ত দেন। এই ফ্রি-কিকের পরই শেষ হয় ম্যাচ। ১-০ গোলে জয় নিয়ে হাসি মুখে মাঠ ছাড়ে সুইডেন।

পুরো ম্যাচে অবশ্য বল দখলের লড়াইয়ে এগিয়ে ছিল সুইজারল্যান্ড। ম্যাচে ৬৭ শতাংশ সময় ধরে তারা বল দখলে রেখেছিল। অন্যদিকে, সুইডেন বল দখলে রেখেছিল ৩৩ শতাংশ সময় ধরে। বল দখলের লড়াইয়ে পিছিয়ে থাকলেও সুইডেন বারবার আক্রমণে গিয়েছে। সুইজারল্যান্ড লক্ষ্যে শট নিয়েছে চারবার। আর সুইডেন লক্ষ্যে শট নিয়েছে তিনবার।

কোয়ার্টার ফাইনালে সুইডেনের প্রতিপক্ষ কারা হবে তা নির্ধারণ হবে আজ রাতেই। বাংলাদেশ সময় রাত বারোটায় দ্বিতীয় রাউন্ডের শেষ ম্যাচে কলম্বিয়ার মুখোমুখি হবে ইংল্যান্ড। এই ম্যাচে যারা জয় পাবে কোয়ার্টার ফাইনালে তাদের মুখোমুখি হবে সুইডেন। কোয়ার্টার ফাইনালে খেলবে আট দল। তার মধ্যে সাতটি দল ইতোমধ্যে নির্ধারণ হয়েছে। দল সাতটি হলো ফ্রান্স, উরুগুয়ে, রাশিয়া, ক্রোয়েশিয়া, ব্রাজিল, বেলজিয়াম ও সুইডেন।

‘এফ’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছিল সুইডেন। গ্রুপ পর্বে তিন ম্যাচ খেলে সুইডিশরা দুইটিতে জয় পায় ও একটিতে হারে। অন্যদিকে, ‘ই’ গ্রুপ থেকে গ্রুপ রানার আপ হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠেছিল সুইজারল্যান্ড। গ্রুপ পর্বে তিন ম্যাচ খেলে তারা একটিতে জয় পায় ও দুইটিতে ড্র করে।

ট্যাগ: সুইজারল্যান্ড সুইডেন