banglanewspaper

বেশ কয়েক বছর হলো, অভিনয় জগৎ থেকে বিদায় নিয়েছেন আয়েশা তাকিয়া। ২০০৪ সালে, ‘টারজান: দ্য ওয়ান্ডার কার’ ছবি দিয়ে বলিউডে পা রাখেন এই অভিনেত্রী। 

সিলভার স্ক্রিন থেকে সরে গেলেও, সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রায়শই তার উপস্থিতি পাওয়া যায়। কখনও নিজের শ্বশুর, সমাজবাদী পার্টির আবু আজমির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছেন আয়েশা, কখনও বা ‘পেটা’র হয়ে ক্যাম্পেন করতে।

কিন্তু, সম্প্রতি এক ভিন্ন কারণে সংবাদে উঠে এসেছে আয়েশা তাকিয়ার নাম। তার স্বামী, ফারহান আজমির করা এক গুচ্ছ টুইট মেসেজই সেই কারণ। মুম্বাই পুলিশের সাহায্য চেয়েই সেই টুইটগুলি করেন ফারহান। 

যেখানে তিনি লেখেন যে, তার বোন ও স্ত্রীকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে, হেনস্থা করা হচ্ছে। এমনকী, বাড়ির বাইরে বেরোলে তাদের পিছু নেওয়ায় হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ফারহান। 

টুইটে ফারহান আরও লেখেন যে, মুম্বাই পুলিশের ডিসিপি তার ফোনের কোনও উত্তর দেননি। প্রসঙ্গত, ফারহানের টুইটে হ্যাশট্যাগ দিয়ে নাম ছিল সুষমা স্বরাজ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীরও। নাম ছিল স্ত্রী আয়েশার। 

আয়েশা তাকিয়ার মোবাইল নম্বরে বেশ কয়েকটি মেসেজ পান প্রাক্তন অভিনেত্রী, যেখানে বলা হয় যে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই তার স্বামীর হাজতবাস হবে। ফারহানের বোন, যিনি সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা, তিনিও এমন হুমকি বার্তা পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বছর কোলাবা থানায় ফারহান আজমি ওই অপরিচিত ব্যক্তির বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। ফারহান তার অভিযোগে বলেন, সেই ব্যক্তি তাদের বলেন, তিনি হিন্দু সেনার সদস্য। সেই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি বলেন, হিন্দু নারীকে বিয়ে করায়, তাদের পরিবারকে টার্গেট করা হতে পারে এবং খুনও করা হতে পারে।
 

ট্যাগ: banglanewspaper তাকিয়া