banglanewspaper

সিলেটের কানাইঘাটে ফের বন্যা দেখা দিয়েছে। বন্যার পানিতে উপজেলার পৌর শহরসহ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে। নতুন করে বিভিন্ন ইউনিয়নের গ্রামের ভেতরে পানি ঢুকছে। এতে জনমনে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। কানাইঘাটে সুরমা ও লোভা নদীতে বিপদসীমার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। 

দু’সপ্তাহ পূর্বের বন্যার পানিতে উপজেলার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। ফসলি জমি, রাস্তাঘাট, হাটবাজার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অবকাঠামোতে মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে, যা এখনও কাটিয়ে উঠা সম্ভব হয়নি। এবার বোরো মৌসুমটা ভালোয় ভালোয় অতিবাহিত হলেও এই ভরা বর্ষায় ফের বন্যার কারণে আমন চাষে বিঘ্ন ঘটছে। এতে কৃষকদের মাঝে হতাশা বিরাজ করছে। 

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্রে জানা যায়, কানাইঘাটে সুরমা নদীতে ১৪ দশমিক ৩৯ সেন্টিমিটারের ওপর পানি প্রবাহিত হচ্ছে। উজানে ভারতের মেঘালয় ও আসাম রাজ্যে অস্বাভাবিক বৃষ্টিপাতের ফলেই এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এদিকে উপজেলার ১নং লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়ন, ২নং লক্ষীপ্রসাদ পশ্চিম, ৩নং দিঘিরপার, ৪নং সাতবাঁক, ৮নং ঝিঙ্গাবাড়ি ইউনিয়নের অধিকাংশ এলাকা পানিতে তলিয়ে গেছে। এসব অঞ্চলের রাস্তাঘাট, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, হাটবাজার, ফসলি জমি ও জনবসতি হুমকির মুখে রয়েছে। 

পৌর কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র-১ দিলাল আহমদ বলেন, পৌর শহরের নিম্নাঞ্চলে ফের বানের পানি প্রবেশ করছে। সদর ইউপি চেয়ারম্যান মামুনুর রশীদ ও ১নং ইউপি চেয়ারম্যান ফয়েজ আহমদ বলেন, ফের বন্যা দেখা দেওয়ায় সাধারণ মানুষ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন। দ্রুত বন্যা নিয়ন্ত্রণ ও ক্ষয়ক্ষতি কাটিয়ে নেওয়ার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা না হলে বড় ধরনের সংকটের সম্মুখীন হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ট্যাগ: banglanewspaper সিলেটে