banglanewspaper

আলফাজ সরকার আকাশ, শ্রীপুর (গাজীপুর): গাজীপুরের শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে সোমবার সকাল নয়টার দিকে জেব্রা পরিবারে আবারো নতুন এক শাবক জন্ম নিয়েছে। এনিয়ে সাফারি পার্কে আফ্রিকান জেব্রা চারবার শাবক প্রসব করল এবং বর্তমানে জেব্রা পরিবারে সদস্য সংখ্যা ১৫টিতে বলে জানায় পার্ক কর্তৃপক্ষ।

সাফারি পার্কের ওয়াইল্ড লাইফ সুপারভাইজার মো. সরোয়ার হোসেন জানান, জেব্রা হলো ইকুইডি পরিবারের আফ্রিকান ক্ষুরযুক্ত চতুষ্পদ স্তন্যপায়ী প্রাণী। যারা তাদের স্বতন্ত্র সাদা-কালো ডোরার জন্য বিশেষ ভাবে পরিচিত। ডোরার পাশাপাশি এদের ঘাড়ে ঘোড়ার ন্যায় কেশর সদৃশ্য খাড়া চুল আছে। এরা সামাজিক প্রাণী, ছোট-বড় পাল তৈরি করে ঘুরে বেড়ায়। প্রাপ্ত বয়স্ক একটি জেব্রা সাধারণত ৮ফুট লম্বা হয়, এদের ওজন ৩০০ কেজির উপরে হয়। পুরুষ বাচ্চারা চার বছরে এবং মাদী বাচ্চারা তিন বছর বয়সেই অনেকটা প্রজননক্ষম হয়। তবে জেব্রা ঘোড়া বা গাধার মত দেখতে হলেও এদেরকে পোষ মানানো যায় না। 

সোমবার সকালে আফ্রিকান কোর সাফারি পার্কের ভেতর বাচ্চাটির জন্ম হয়। জন্মের পর মা জ্রেবা ও বাচ্চা জেব্রাটি সুস্থ রয়েছে। কিছুক্ষণ পরপর মা জেব্রা বাচ্চার বিশেষ যত্ন নিতে দেখা যায়।

তিনি আরো বলেন, ঘাস মূলত এদের প্রধান খাবার, মা জেব্রার পুষ্টি গুণের কথা চিন্তা করে তাঁর খাবারে বেশ পরিবর্তন আনা হয়েছে। ঘাসের পাশাপাশি তাদের ছোলা, গাজর, ভুট্টা ও ভূষি দেয়া হচ্ছে। তবে এখনো কাছে যেতে না পারায় বাচ্চাটি পুরুষ না মাদী তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। এখানে আগের ১৪টি জেব্রার মধ্যে সাতটি মাদি এবং সাতটি পুরুষ রয়েছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোতালেব হোসেন জানান, প্রাকৃতিকভাবে জেব্রা সাধারণত ২০বছর এবং তবে আবদ্ধ পরিবেশে তারা ২০ বছরের বেশি সময় পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তিনি আরো জানান, ২০১৮সালের ৪ফেব্রুয়ারি ও ২০১৭সালে ১৪ই মে ও চলতি বছরের ৬মার্চ জেব্রা থেকে বাচ্চা পাওয়া গিয়েছিল। জেব্রা পরিবার থেকে প্রজননে আশার সঞ্চার হয়েছে, ভবিষ্যতেও জেব্রা পরিবার থেকে আরো বাচ্চা আশা করা যাচ্ছে।
 

ট্যাগ: banglanewspaper বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারী পার্ক