banglanewspaper

কক্সবাজার প্রতিনিধি: কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা আনোয়ার প্রজেক্ট এলাকা থেকে অভিযান চালিয়ে ২০ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করেছে বিজিবি। যার আনুমানিক মূল্য ৬০লক্ষ টাকা। তবে এ অভিযানে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে কর্দমাক্ত লবণ মাঠের ভেতর দিয়ে পাচারকারীর পালিয়ে যায় বলে জানা গেছে।

টেকনাফ-২ বিজিবি’র অধিনায়কের পক্ষে অতিরিক্ত পরিচালক মেজর শরীফুল ইসলাম জোমাদ্দার রবিবার(৮জুলাই)প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে হ্নীলা বিওপির দায়িত্বপূর্ণ আনোয়ার প্রজেক্ট এলাকা দিয়ে ইয়াবার একটি চালান মিয়ানমার হতে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে পারে এমন সংবাদের ভিত্তিতে ৭ জুলাই রাতে ২ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধীনস্থ হ্নীলা বিওপির নায়েক ছাবির উদ্দিনের নেতৃত্বে একটি বিশেষ টহল দল প্রজেক্ট এলাকায় গমন করে। প্রজেক্টের  অপর প্রান্তে নাফ নদীর কিনারায় পাচারকারী দল ঔঁ পেতে থাকে।

৮ জুলাই ভোর ৪টায় একজন লোককে একটি ব্যাগ হাতে নাফ নদী হতে আনোয়ার প্রজেক্ট এলাকার দিকে আসতে দেখে টহল দল থাকে চ্যালেঞ্জ করে। বিজিবি টহল দলের উপস্থিতি লক্ষ্য করা মাত্রই ইয়াবা পাচারকারী দৌঁড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে টহল দল তার পিছু ধাওয়া করে। একপর্যায়ে ইয়াবা পাচারকারী তার হাতে থাকা ব্যাগটি ফেলে অন্ধকারের সুযোগ নিয়ে কর্দমাক্ত লবণ মাঠের ভেতর দিয়ে পালিয়ে যায়। অতঃপর টহল দল ইয়াবা পাচারকারী কর্তৃক ফেলে যাওয়া ব্যাগটি খুলে গণনা করে ৬০ লক্ষ টাকা মূল্যমানের ২০ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। উ

দ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটগুলো ব্যাটালিয়ন সদরে জমা রাখা হয়েছে। যা পরবর্তীতে উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও মিডিয়া কর্মীদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হবে।

ট্যাগ: banglanewspaper ইয়াবা