banglanewspaper

নিজস্ব প্রতিবেদক: কর্তৃপক্ষের পূর্ব অনুমতি ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ক্যাম্পাসে বহিরাগতরা চলাচল, অবস্থান কিংবা কোনো ধরনের কার্যক্রম চালাতে পারবে না।

৫ জুলাই বৃহস্পতিবার রাতে প্রভোস্ট কমিটির সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কমিটির সিদ্ধান্তের বিষয়টি রোববার বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন গণমাধ্যমে জানিয়েছে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনকে কেন্দ্র করে ঘটে যাওয়া অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার প্রেক্ষাপট বিবেচনা সার্বিক অবস্থা পর্যালোচনার জন্য বৃহস্পতিবার রাতে প্রভোস্ট কমিটির সদস্যরা বৈঠকে বসেন।

এছাড়া প্রভোস্ট কমিটির বৈঠকে বেশকিছু সিদ্ধান্ত হয়েছে। সেগুলো হলো যাদের ছাত্রত্ব নেই তারা হলে অবস্থান করতে পারবে না। এমনকি হল প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া কোনো ছাত্রের অভিভাবক কিংবা অতিথি হলে অবস্থান করতে পারবে না। নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠনের সদস্য ও চরমপন্থীরা হলে প্রবেশ অথবা অবস্থান করতে না পারে সে ব্যাপারে হল প্রশাসনকে সর্বোচ্চ সতর্ক ও তৎপর থাকতে হবে।

এছাড়া উসকানিমূলক বক্তব্য, গুজব ছড়ানো থেকে বিরত থাকার জন্য শিক্ষার্থীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে প্রভোস্ট কমিটি।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে কোটা আন্দোলনকে কেন্দ্র করে সংঘটিত কতিপয় অনাকাঙিক্ষত ঘটনার তদন্ত করে সুপারিশসহ প্রতিবেদন প্রদানের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদকে আহ্বায়ক করে ৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কর্তৃপ‌ক্ষের অনুম‌তি ব্যতীত ক্যাম্পা‌সে ব‌হিরাগত অবস্থা‌নের বিষ‌য়ে জান‌তে চাই‌লে ঢাকা বিশ্ব‌বিদ্যাল‌য়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী ব‌লেন, এ‌ ক্ষে‌ত্রে সক‌লের সহ‌যো‌গিতা চাই। শিক্ষার্থী-শিক্ষক, পু‌লিশ সক‌লের সহ‌যো‌গিতায় এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হ‌বে।

ট্যাগ: banglanewspaper ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়