banglanewspaper

রাজধানীর শীর্ষ মাদক কারবারি হিসেবে তালিকাভুক্ত নাদিম হোসেন ওরফে পঁচিশ গুলিতে নিহত হয়েছেন।

সোমবার গভীর রাতে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকায় গোলাগুলির তার মৃত্যুর কথা জানিয়েছে র‌্যাব।

একই রাতে রাজধানীর মিরপুরেও গুলিতে নিহত হয়েছেন একজন। তিনিও মাদকের কারবারে জড়িত ছিলেন বলে জানিয়েছে বাহিনীটি।

পঁচিশ বিভিন্ন সামাজিক কাজকর্মের আড়ালে মাদকের কারবারে জড়িত ছিলেন বলে জানাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। রাজধানীর জেনেভা ক্যাম্পে তার জন্ম। ছোটবেলায় তার মা-বাবা মারা যাওয়ার পর ক্যাম্প এলাকার একটি হোটেলে কাজ করতেন তিনি। বেতন ছিল ২৫ টাকা। ওই সময় থেকেই গাঁজা বিক্রি শুরু করেন। বিক্রি করতেন ২৫ টাকায়। এ কারণে ‘পঁচিশ’ নামে তাকে ডাকা শুরু হয়। পরে এ নামই চালু হয়ে যায়।

র‌্যাবের গণমাধ্যম শাখা থেকে পাঠানো ক্ষুদেবার্তায় জানানো হয়, ‘সোমবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ এলাকায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মো. নাদিম হোসেন ওরফে পঁচিশ (৩৫) নিহত হয়েছে। সে রাজধানীর সেনেভা ক্যাম্পের শীর্ষ ও কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী ছিল।’

নাদিম হোসেন পঁচিশের বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় হত্যাসহ ১২টি মামলা রয়েছে। গ্রেপ্তারও হয়েছেন বহুবার। কিন্তু কারাগার থেকে বেরিয়ে আবার পুরোনো কারবারে ফিরে যেতেন। তিনি একাধিকবার আত্মসমর্পণ করে মাদকের কারবার ছেড়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

এদিকে সোমবার দিবাগত ভোর সাড়ে চারটার দিকে মিরপুরের বেড়িবাঁধ এলাকায় গোলাগুলিতে নিহত হন ইব্রাহিম ওরফে পাইলট বাবু। র‌্যাবের ভাষ্য, তিনি কুখ্যাত মাদক কারবারি ছিলেন।

ঢাকা মেডিকেল সূত্রে জানা যায়, রাত তিনটার দিকে র‌্যাব একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে আনে। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভোরে তার মৃত্যু হয়। লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজের জরুরি বিভাগের মর্গে রাখা হয়েছে।

ট্যাগ: banglanewspaper বন্দুকযুদ্ধ