banglanewspaper

এম.পলাশ শরীফ, মোরেলগঞ্জ: বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জের এক গৃহিনী আত্মহত্যার উদ্যেশে সুন্দরবনে পবেশ করে ব্যার্থ হয়েছেন। বনবিভাগ গৃহিনী মেরী বেগমকে(৪৫) অক্ষত অবস্থায় উদ্ধার করে নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের কাছে পৌছে দিয়েছেন।

চাঁদপাই রেঞ্জের অধীন আমরবুনিয়া ফরেষ্ট ক্যাম্পের বনরক্ষীরা মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে তাকে উদ্ধার করেন।

মেরী বেগম জিউধরা গ্রামের খলিল শেখের স্ত্রী। তার ২ ছেলে ও ১ মেয়ে রয়েছে। এই ঘটনা সম্পর্কে খলিল শেখ বলেন, সোমবার বিকেলে পার্শ্ববর্তী জা’র সাথে ঝগড়া হওয়ায় মনের কষ্টে সে বাড়ি থেকে চলে যায়। মঙ্গলবার সকালে বনবিভাগের লোকজন তাকে আত্মহত্যার প্রস্তুতি নেওয়ার সময় ধরে ফেলে।

ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম বাচ্চু, দৈনিক গ্রামের কাগজের চীফ রিপোর্টার এম. আইউব, আমাদের অর্থনীতি’র যশোর জেলা প্রতিনিধি এমএআর মশিউর, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মশিউর রহমান মাসুম, সহ-সভাপতি গনেশ পাল, দৈনিক খুলনাঞ্চলের মোরেলগঞ্জ প্রতিনিধি এম. পলাশ শরীফ সহ স্থানীয় জনসাধারনের উপস্থিতিতে মেরী বেগম কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, “বেচে থাকতে চাইনা” ‘পরিবারে আমার কথার কোন সম্মান নেই। তাই বাঘের মুখে আত্মাহুতির সিদ্ধান্ত নেই। বাঘের দেখা না পেয়ে গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগানোর চেষ্টা করি। ঐ সময় আমাকে ধরে ফেলে। আমি আর বাড়ি ফিরে যেতে চাইনা’।

এ বিষয়ে আমরবুনিয়া ফরেষ্ট ক্যাম্পের ওসি তামানুল কাদির বলেন, মেরী বেগম আত্মহত্যার জন্য বনে প্রবেশ করেন। আমরা তাকে উদ্ধার করে ১৩নং নিশানবাড়িয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের নিকট পৌছে দিয়েছি।

ট্যাগ: Banglanewspaper মোরেলগঞ্জ সুন্দরবনে নারী বনবিভাগ