banglanewspaper

মো. মোজাম্মেল ভূইয়া, আখাউড়া: ব্রাহ্মণবাড়ীয়া আখাউড়ার রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে ক্লাস ও পরীক্ষা চলার সময়েও স্কুলের ভেতরে ঢুকে মাদকাসক্ত বখাটেরা ছাত্রীদের ইভটিজিং করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সকাল ১১ টায় বিদ্যালয়ের পরীক্ষা চলাকালীন সময়েও দেখা যাচ্ছে স্থানীয় মাদকাসক্ত যুবক ও বখাটে ছেলেরা স্কুলের বারান্দায় এবং ছাত্রদের বাই সাইকেল রাখার স্থানে অবস্থান করছে।

বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও অধ্যায়নরত ছাত্র ছাত্রীরা জানায়, প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২ টার পর্যন্ত বখাটেরা স্কুলের সামনের রাস্তায়, মেইন গেইট ও বারান্দায় দাঁড়িয়ে মেয়েদের বিরক্ত করে। এতে স্কুলের পাঠদান ব্যাহত হয়। এ ঘটনায় শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা চরম ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

বখাটেরা স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী হওয়ায় ভয়ে তাদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করার সাহস পান না। বিষয়টি অভিভাবকদের জানানোর পরে স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানানো হয়। স্কুল বন্ধ হওয়ার পরে স্কুলের হলরুম ও বারান্দায় চলে প্রভাবশালী ইয়াবা ব্যবসায়ী যুবকের নের্তৃত্বে মাদক সেবন। এতে স্কুলের পরিবেশ যেমন নষ্ট হচ্ছে তেমনি করে এলাকার কিশোর ও যুবকেরা ও মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছে। তাদের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে কেউ মুখ খুলছে না। এ অবস্থা চলতে থাকলে উপজেলার সবচেয়ে প্রাচীনতম ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি পাঠদান সংকটের মুখে পড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন সচেতন অভিভাবকরা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আমিনুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘স্কুলে আসার সময় ও ছুটির সময়ই বখাটেরা বিভিন্নভাবে উত্যাক্ত করে। বিষয়টি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের কাছ থেকে শোনার পর আমি আমার উপর মহলকে অবহিত করেছি।’

আখাউড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, ‘উপজেলার সবচেয়ে ভাল ও স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের ন্যক্কারজনক কর্মকাণ্ড কোনভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করব।’

আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শামসুজ্জামান বলেন, ‘বিষয়টি বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহন করব।’

ট্যাগ: Banglanewspaper আখাউড়া রেলওয়ে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়