banglanewspaper

খেলতে খেলতে সবার অজান্তেই আস্ত একটি পুঁটি মাছ মুখে ঢুকে যায় ভারতের মালদহ জেলার মোথাবাড়ির ব্লকের আট মাসের নাফিজা খাতুন নামে একটি শিশু। আটকে যায় শ্বাসনালীতে। প্রথমে বাঙ্গিটোলা গ্রামীণ হাসপাতালে ও পরে মালদহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় শিশুটিকে। চিকিৎসকদের দীর্ঘ চেষ্টায় প্রাণে বাঁচে শিশুটি।

মালদহের কালিয়াচক থানার মোথাবাড়ি এলাকায় রফিকুল ইসলাম পেশায় কৃষক। তিনি জানিয়েছেন, বাজার থেকে মাছ নিয়ে আসেন। রফিকুলের স্ত্রী মাছ কেটে রান্নার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। পাশেই বসে ছিল আট মাসের নাফিজা খাতুন। হঠাৎই একটি মাছ মুখে পুরে নেয় সে। সঙ্গে সঙ্গেই শ্বাসনালিতে আটকে যায় মাছটি। শিশুটি নিস্তেজ হয়ে পড়ে।

মালদহ মেডিক্যাল কলেজের ডেপুটি সুপার জ্যোতিষচন্দ্র দাস জানিয়েছেন, বরাবরই মালদহ মেডিক্যাল হাসপাতাল চিকিৎসকদের গাফিলতিতে রোগী মৃত্যুর খবর শিরোনামে আসে। কিন্তু সৌভাগ্যক্রমে শিশুটির বেঁচে যায়। 

ট্যাগ: