banglanewspaper

কে.এম.লিমন, গোয়াইনঘাট: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রায় সাড়ে ৪ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলার বৃহত্তম জাফলং পাথর কোয়ারি।

পরিবেশ রক্ষার্থে যান্ত্রিক ভাবে পাথর উত্তোলনের উপর উচ্চ আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকলেও সিলেট জেলার পাথর কোয়ারিগুলো থেকে সনাতন পদ্ধতিতে শ্রমিক দ্বারা পাথর উত্তোলনও বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ফলে এই পাথর কোয়ারির সাথে সংশ্লিষ্ট কয়েক লক্ষাধিক শ্রমিক এবং ব্যবসায়ী বেকার ও কর্মহীন হয়ে পড়েছেন। তারা পরিবার পরিজন নিয়ে অনেকটা অর্ধাহারে অনাহারে দিনাতিপাত করছেন।

একই সাথে পরো উপজেলা জুড়েই দেখা দিয়েছে মানবিক বিপর্যয়। পাথর কোয়ারিটি চালুর ব্যাপারে মহামান্য হাই কোর্টের নির্দেশনা পওয়ার পরও চালু হয়নি কোয়ারির পাথর উত্তোলন কার্যক্রম। তাই কোয়ারি সংশ্লিষ্ট কয়েক লক্ষাধিক মানুষের কর্মসংস্থানের স্থল জাফলং পাথর কোয়ারি সচলের লক্ষে জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট ব্যবসায়ী শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে আগামীকাল রোববার নলজুরি বাজারে এক বিশাল বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন কর হয়েছে।

এই আন্দোলনের মাধ্যমে জাফলং পাথর কোয়ারী সচল না হলে এই সংগঠনের সাথে একাত্বতা ঘোষণা করে ১৬ জানুয়ারি থেকে সিলেটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘটের হুমকি দিয়েছে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

এ ব্যাপারে জৈন্তাপুর-গোয়াইনঘাট ব্যবসায়ী শ্রমিক ঐক্য পরিষদে’র সমন্বয়কারি আব্দুল মুতলিব খান জানান লক্ষাধিক মানুষের জীবন জীবিকার উৎসস্থল জাফলং পাথর কোয়ারি বন্ধ থাকায় একদিকে যেমন লক্ষ লক্ষ মানুষ বেকার ও কর্মহীন হয়ে আর্থিক দিক দিয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন।

অপরদিকে সরকারও কোটি কোটি টাকা রাজস্ব বঞ্চিত হচ্ছে। তাই লক্ষাধিক ব্যবসায়ী ও শ্রমিকের স্বার্থ সংশ্লিষ্ট এই জাফলং পাথর কোয়ারি সচল না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগ: