banglanewspaper

ডেস্ক রিপোর্ট: সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নির্দেশে টেলিফোনে আড়িপাতা হয়েছিল বলে অভিযোগ তুলেছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যদিও কোন প্রমাণ দেখাতে পারেননি তিনি। তবে টুইট বার্তায় ট্রাম্প বলেছেন, নির্বাচনী প্রচারণার সময় তার ট্রাম্প টাওয়ারের ফোনে আড়িপাতা হয়েছে। খবর বিবিসির। 

ট্রাম্পের এমন অভিযোগ জোরালোভাবে নাকচ করে দিয়েছেন ওবামার মুখপাত্র কেভিন লুইস। তিনি বলেছেন, ওবামা বা হোয়াইট হাউসের কোন কর্মকর্তাই কখনো কোনো মার্কিন নাগরিকের উপর নজরদারির নির্দেশ দেননি। বরং এ ধরণের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে, তা পুরোপুরি মিথ্যা।

এক টুইট বার্তায় ডোনাল্ড ট্রাম্প লিখেছেন, ‘ভয়াবহ ব্যাপার। এইমাত্র জানতে পারলাম, নির্বাচনে জয়ের আগে আমার ট্রাম্প টাওয়ারে আড়ি পেতেছিলেন ওবামা। যদিও তারা কিছুই পাননি।’

এই ঘটনাকে ট্রাম্প নিক্সন প্রশাসনের ওয়াটারগেট কেলেঙ্কারির সঙ্গে তুলনা করেছেন। ১৯৭২ সালে টেলিফোনে আড়িপাতা আর ঘুষের মতো অভিযোগ সংবাদমাধ্যমে প্রকাশের পর তৎকালীন প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনকে পদত্যাগ করতে হয়।

এদিকে, কেভিন লুইস বলেছেন, বিচার বিভাগের কোন তদন্তেই কখনো ওবামা বা হোয়াইট হাউসের কোনো কর্মকর্তা নাক গলাননি।

ডেমোক্রেট নেতারা অবশ্য বলছেন, রাশিয়ার কর্মকর্তাদের সঙ্গে ট্রাম্প প্রশাসনের সম্পর্কের বিষয় ধরে যে স্বতন্ত্র তদন্তের দাবি উঠেছে, তা থেকে নজর সরাতেই ট্রাম্প এসব অভিযোগ তুলছেন।

ট্যাগ: