banglanewspaper

আমিনুল ইসলাম হিমেল, মৌলভীবাজার প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার হিলালপুর এলাকার ফতেপুর ভিলা নামীয় একটি বাড়ির দেয়ালের ভেতর কুড়িয়ে পাওয়া নাজাতকেরটি অবশেষে স্থানপেলে মা বাবার কোলে। অভিবাবকবিহীন নবজাতকের প্রকৃত অভিবাবক খুজে বের করা ও হাসপাতালের চিকিৎসককে সর্বোচ্চ যত্ন সহকারে চিকিৎসা ব্যবস্থা নেয়া এবং সমাজ সেবা কার্যালকে সার্বিক খোজ নেয়ার নির্দ্দেশ দিয়েছিল মৌলভীবাজারের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের (শিশু আদালত)।

আদালত আরো জানিয়েছেন যে কেউ শিশুটিকে দত্তক নিতে পারবেন। এজন্য আগ্রহীরা আদালতে আবেদন করতে পারবেন এরই বিত্তিতে নাবজাতকটি পিতা-মাতার স্নেহে লালন পালন ও নিজ হেফাজতে নেয়ার জন্য বিজ্ঞ আদালতে আবেদন করেন নিঃসন্তান পাঁচ দম্পতি ।

আবেদনের প্রেক্ষিতে বিজ্ঞ আইনজীবী-গনের শুনানী অন্তে আদালত মৌলভীবাজার জেলার নাদামপুর, হামরকোনা নিবাসী প্রবাসী আবদুল হাদী ওতার স্ত্রী মাসুদা বেগমকে বিজ্ঞ আদালত কুড়িয়ে পাওয়া নবজাতক নিষ্পাপ শিশুটিকে পিতা-মাতার স্নেহে লালন পালন করার শর্তে জিম্মায় প্রদান করেন। আদালত তার আদেশে বলেন অমানুষ রুপী জন্মদাতা পিতা-মাতা যদি আরোও পাঁচটি সন্তানকে ফেলিয়া যাইতেন তাহা হইলেও ঐ পাঁচটি সন্তানের হেফাজতে নেওয়ার মানবতাবাদী পাঁচজন দম্পতি নিঃস্বার্থভাবে হেফাজতে নেওয়ার জন্য প্রস্তুত ছিলেন। এই মহৎ কাজে সহযোগিতা করেছেন সাবেক পিপি এডভোকেট ভূবনেশ্বর পূরকায়স্থ, জেলা বারের সভাপতি এডভোকেট রঞ্জিত কুমার ঘোষ, এডভোকেট কামরেল আহমেদ চৌধুরী, এডভোকেট আনোয়ার আক্তার চৌধুরী, এডভোকেট দীপক কুমার ধর, এডভোকেট রজত কান্তি অর্জুন, এডভোকেট বকশী জোবায়ের আহমদ।

উল্লেখ্য, গত ২৪ মে বুধবার সকাল ৯ টার দিকে মৌলভীবাজার সদর উপজেলার হিলালপুর এলাকার ফতেপুর ভিলা নামীয় একটি বাড়ির দেয়ালের ভেতর তীর মিয়া নামে এক ব্যাক্তি ঘাস কাটতে গেলে দেখতে পান একটি নবজাতক জীবিত ছেলে শিশু পড়ে রয়েছে। পরে পুলিশকে খবর দিলে মডেল থানার ওসি সুহেল আহমদ সহ একদল পুলিশ ঘটনা স্থলে ছুটে যান। পুলিশ জীতিব শিশুটিকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ বিষয়ে পুলিশ ২৪ মে মৌলভীবাজার মডেল থানায় (জিডি নং ১৩৫১) জিডি করে।

এ সময় শিশুটির বিষয়ে ওসি সুহেল আহমদ প্রাথমিক দ্বায়িত্ব নিয়ে বলেন, শিশুটির পিতা মাতার সন্ধান না পাওয়া পর্যন্ত তার চিকিৎসা সহ নিজের সন্তানের মত দায়িত্ব পালন করবেন। ঐ দিন সারাদেশে বল্য বিবাহমুক্ত দিবস ছিল। সে বিষয়টি চিন্তাকরে সেই দিন অভিবাবকবিহীন উদ্ধার হওয়া নাবজাতকটির নাম রাখেন মুক্ত।

ট্যাগ: