banglanewspaper

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি: প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অপরূপা নদী, হাওর-বাওড়, টিলা ও  বিস্তীর্ণ সমতল ভূমি, সুদৃশ্য চা বাগান, রাবার বাগান, প্রাকৃতিক গ্যাস, নৈসর্গ ঘেরা বহুমাত্রিক বৈশিষ্ট্যের অধিকারী হবিগঞ্জ জেলা। ধর্মীয় ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত হবিগঞ্জ জেলাকে দেশ-বিদেশে তুলে ধরতে হবে। প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব অশোক মাধব রায়। লক্ষ্যে হবিগঞ্জ জেলা ব্রান্ডিং এর চ্যালেঞ্জ ও উত্তরণের উপায় ও কর্ম-পরিকল্পনা নিয়ে কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 

গতকাল শনিবার সকালে জেলা প্রশাসক মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সাবিনা আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব অশোক মাধব রায়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক (উপ-সচিব) এমরান হোসেনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রধান মন্ত্রীর কার্যালয়ের ই-সার্ভিসের পরিচালক যুগ্ম-সচিব ড. আব্দুল মন্নান, স্থানীয় সরকার বিভাগের পরিচালক (উপ-সচিব) শফিউল আলম, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কুদ্দুছ আলী সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মোঃ রুকন উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ নূরুল হোসেন, এনডিসি হাসান মারুফ। মুক্ত আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন হবিগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা রফিক, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী মোহাম্মদ ফরিয়াদ, মুক্তিযোদ্ধা হায়দার আলী, ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি (ব্যক্স) এর সভাপতি শামছুল হুদা প্রমূখ।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলার সদর, লাখাই, বানিয়াচং, নবীগঞ্জসহ অন্যান্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিবৃন্দ। কর্মশালায় ৫টি গ্র“পে ভাগ হয়ে জেলার সম্ভাবনাময় বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়। সভার শুরুতে হবিগঞ্জ জেলার ডকুমেন্টারী ও প্রামাণ্য চিত্র উপস্থাপন করা হয়।

ট্যাগ: