banglanewspaper

মনিরুল ইসলাম মনি: ইতিহাস-ঐতিহ্যে টইটম্বুর কুষ্টিয়ার সাংস্কৃতিক জনপদ কুমারখালীর ইতিহাস ও ঐতিহ্য নিয়ে মোহনা টিভিতে সাজ্জাদ রাহমানের প্রযোজনায় প্রচারিত প্রামাণ্যচিত্র ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে।

লালন-কাঙ্গাল-রবীন্দ্র-মশাররফ-বাঘা যতীনের স্মৃতিধন্য কুমারখালীর বর্ণাঢ্যমুখর কাহিনী খুব সুন্দর ভাবে উপস্থাপিত হয়েছে প্রামাণ্যচিত্রটিতে। প্রামাণ্যচিত্রটিতে গ্রামীণ সাংবাদিকতার পথিকৃৎ কাঙ্গাল হরিনাথ মজুমদারের ইতিহাস বলেছেন কবি ও নাট্যকার লিটন আব্বাস। কাঙ্গাল হরিনাথকে নিয়ে আরও কথা বলেছেন পৌপুত্র অশোক মজুমদার। যিনি আজ বেঁচে নেই।

বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কুঠিবাড়ি সম্পর্কে বলেছেন রবীন্দ্র ইনন্সিটিউটের সভাপতি ও রবীন্দ্র গবেষক ওয়াকিল মুজাহিদ, শিলাইদহ রবীন্দ্র সংসদের নির্বাহী পরিচালক এস. নজরুল ইসলাম।মীর মশাররফ হোসেনের বাস্তুভিটা ও জাদুঘরের তত্ত্বাবধায়ক মীর মাহবুব উল আরিফ মুসলিম কথা সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেন সম্পর্কে বর্ণণা করেন।এছাড়াও কুমারখালী পৌরসভা নিয়ে কথা বলেন পৌরসভার প্যানেল মেয়র হারুন আর রশীদ। উপজেলার সামগ্রিক প্রশাসনিক কাঠামো তুলে ধরেন তৎকালীন ইউএনও মোছা. সাহেলা আক্তার।

অনুষ্ঠানটি সম্পর্কে  কবি ও নাট্যকার লিটন আব্বাস বিডিনিউজ আওয়ারকে বলেন, বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক ইতিহাস কুমারখালীর ইতিহাস ছাড়া অপূর্ণ। তাই মোহনা টিভি এমন একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করায় সাধুবাদ জানাই। সেই প্রযোজক সাজ্জাদ রাহমানকেও ধন্যবাদ জানাচ্ছি কুমারখালীকে বিশ্ববুকে তুলে ধরার জন্য।

পুরবাসীর প্রযোজক সাজ্জাদ রাহমান বিডিনিউজ আওয়ারকে বলেন, বাংলাদেশের প্রতিটি পৌরসভা নিয়েই কাজ করেছি। তবে তাঁর মধ্যে কুমারখালীর কাজ আমার স্বরণীয় হয়ে থাকবে। এখানকার মানুষও অনেক ভালো।

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেছেন ইতি দেওয়ান। অনুষ্ঠানটি শেষ করা হয় স্থানীয় লোকশিল্পীদের মনোমুগ্ধকর সংগীতায়জনের মাধ্যমে।

প্রামাণ্যচিত্র ‘পুরবাসী’র ভিডিও দেখুন:

ট্যাগ: