banglanewspaper

প্রহলাদ মন্ডল সৈকত, রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) : আগামী রোববার (২০ আগস্ট) কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বন্যাদূর্গত এলাকার বানভাসিদের দেখতে ও ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করতে দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজারহাট সফরে আসছেন। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে ঘিরে উপজেলার সর্বত্রে সাজ সাজ রব বিরাজ করছে।

দলীয় জেলা-উপজেলা নেতা-কর্মীরা সক্রিয় হয়ে উঠছে। এছাড়া জেলা ও উপজেলা প্রশাসন প্রধানমন্ত্রীর সফরকে সফল করার লক্ষ্যে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে।

কুড়িগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাফর আলী (সাবেক এমপি), জেলা প্রশাসক আবু ছালেহ মোহাম্মদ ফেরদৌস খান, রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রফিকুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবুনুর মো. আক্তারুজ্জামান, জেলা তথ্য অফিসার মো. শাহজাহান আলীসহ জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাগণ প্রধানমন্ত্রীর সুধী সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে পাঙ্গারাণী লক্ষ্মীপ্রিয়া স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ প্রস্তুত করছেন।

ওইদিন প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টার যোগে বিকাল ৩টায় পাঙ্গা ভূমি অফিস সংলগ্ন খেলার মাঠে অবতরণ করবেন। এরপর জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে তিনি সভাস্থলে যোগ দিয়ে উপজেলার বন্যাদূর্গত এলাকার বানভাসি মানুষদের খোঁজ-খবর নিবেন এবং তাদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করবেন। পরে তিনি ওই কলেজ মাঠে সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখবেন।

প্রধানমন্ত্রীর আগমনকে স্বাগত জানিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আবুনুর মোঃ আক্তারুজ্জামান জানান, এবারের স্মরণকালের বন্যায় রাজারহাটের মানুষের দূর্ভোগ চরমে উঠেছে। বন্যা নিয়ে কোন রাজনীতি করতে দেয়া হবে না। তাই  ২০ আগস্ট জননেত্রী, দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বন্যাদুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য রাজারহাট সফরে আসছেন। তিনি সকলকে পাঙ্গা কলেজ মাঠে আসার আহবান জানান।  তিনি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে উপজেলার রাস্তা-ঘাটের বেহাল দশা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সমস্যা এবং তিস্তা ও ধরলা নদীর ড্রেজিংসহ অর্ধ শতাধিক সমস্যা পূরণের দাবী জানাবেন। 

ট্যাগ: