banglanewspaper

হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাটের সাতছড়ির গহীন অরণ্য থেকে ফের অস্ত্র ও বিপুল সংখ্যক গোলাবারুদ ও বিস্ফোরক উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

বুধবার ভোর থেকে অস্ত্র উদ্ধারে নেমেছে র‌্যাব।

র‌্যাব-৯ শ্রীমঙ্গল ক্যাম্পের কমান্ডিং অফিসার মোসাব্বির রহমান জানান, সাতছড়ির গহীন অরণ্য থেকে আবারো কঠোর গোপনীয়তায় আগ্নেয়াস্ত্র ও বিপুল সংখ্যক গোলাবারুদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব। তবে কি পরিমাণ অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে তা দুপুর একটার দিকে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে জানানো হবে।

এর আগে ৩ সেপ্টেম্বর বিকেলে র‌্যাব ফের সাতছড়িতে অভিযানে আসে। রাতে তারা সাতছড়িতে অভিযান চালায়। ৪ জুন পর্যন্ত অভিযানে আটটি বাঙ্কারের সন্ধান পায় র‌যাব। বাঙ্কারগুলো থেকে  গোলাবারুদ আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

২৯ আগস্ট থেকে এ উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। সেসময় অভিযান চালিয়ে মাটির নিচে একটি কন্টেইনার থেকে ৯টি এসএমজি, ১টি এমএমজি, ১টি বেটাগান, ১টি ৭.৬২ মি.মি. অটো রাইফেল, ৬টি এসএলআর, ২টি এলএমজি, ১টি স্নাইপার টেলিস্কোপ সাইড ও ২ হাজার ৪শ’ রাউন্ড গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়।

১ জুন রাত থেকে সাতছড়িতে দুই শতাধিক র‌্যাব সদস্য, ডগ স্কোয়াড ও বোমা বিশেষজ্ঞ দল নিয়ে অভিযান শুরু করে। একে একে আবিষ্কার করে ১৫টি বাংকার। এসব বাংকার থেকে উদ্ধার করা হয় ২২২টি কামান বিধ্বংসী রকেট, ২৪৮টি রকেট চার্জার, ১টি রকেট লঞ্চার, ৪টি ৭ দশমিক ৬ মিলিমিটার মেশিনগান, ৫টি মেশিন গানের অতিরিক্ত খালি ব্যারেল, ১২ দশমিক ৭ মিলিমিটারের ১৩শ’ ৭৬ রাউন্ড বুলেট, ৭ দশমিক ৬ মিলিমিটারের ১২ হাজার ৩০০ রাউন্ড বুলেটসহ বিপুল পরিমাণ গোলাবারুদ। এ ঘটনায় র‌্যাব চুনারুঘাট থানায় দুটি মামলা দায়ের করে।

১৯ জুন রাতে র‌্যাব আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের অভিযান স্থগিত করেছিল।

ট্যাগ: