banglanewspaper

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি: প্রেমিকের টানে সিঙ্গাপুর থেকে কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে ছুটে এসেছেন ফিলিপাইনের এক তরুণী। তাঁর প্রেমিক রুবেল আহমেদের বাড়ি উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর মাঠেরপাড় গ্রামে। ইয়াসমিন নামের ফিলিপাইনের ওই তরুণী গত সোমবার রুবেলের বাড়িতে আসেন। 

বুধবার বিকালে ফুলবাড়ী উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর মাঠেরপাড় গ্রামে রুবেল আহমেদের বাড়িতে গিয়ে ওই তরুণীকে দেখা গেছে। ওই বিদেশি তরুণীকে একনজর দেখার জন্য রুবেল আহমেদের বাড়িতে শতশত মানুষ  ভিড় করে।  

উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের অনন্তপুর মাঠেরপাড় গ্রামের বেলাল হোসেনের ছেলে রুবেল আহমেদ। ইয়াসমিন নামের এ তরুণী মঙ্গলবার রুবেলের বাড়ি আসেন। বিদেশি এই তরুণীকে একনজর দেখার জন্য ওই বাড়িতে মানুষের ঢল নেমেছে।

রুবেল জানান, সিঙ্গাপুরে একটি গ্লাস কোম্পানিতে কর্মরত থাকায় তার সঙ্গে ফিলিপাইনের ফারান্দ ইসলামের মেয়ে ইয়াসমিনের সঙ্গে পরিচয়। সেই পরিচয় থেকেই তাদের মধ্যে পরিণয়।

রুবেল ১০ বছর ধরে সিঙ্গাপুরে ছিলেন এবং ৫ বছর ধরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক চলছিল। সম্প্রতি রুবেল ছুটিতে বাংলাদেশে আসেন। দীর্ঘ পাঁচ মাস থেকে তাদের মধ্যে দেখা সাক্ষাত না থাকায় প্রেমের টানে ইয়াসমিন বাংলাদেশে তার কাছে চলে আসেন।

পারিবারিক সূত্র জানায়, ইয়াসমিন বাংলাদেশে আসার পর রুবেলের পরিবারের লোকজন বিষয়টি শুনে তাদের সম্পর্কের স্বীকৃতি দেয়। তারা ঢাকায় একটি আদালতে এফিডেভিডের মাধ্যমে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বর্তমানে তারা দুজন ইসলাম ধর্ম মতে স্বামী-স্ত্রী। এক সপ্তাহ পর নতুন এই দম্পতি আবারো সিঙ্গাপুরে তাদের কর্মস্থলে ফিরে যাবে।

ট্যাগ: banglanewspaper কুড়িগ্রাম প্রেম