banglanewspaper

ওমর ফারুক, বান্দরবান: বান্দরবানে বিপুল  পরিমান নিষিদ্ধ চম্পাফুল কাঠ জব্দ করেছে বান্দরবান বন বিভাগ। বান্দরবান বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কাজী কামাল হোসেন এ অভিযান পরিচালনা করেন।

সোমবার বিকেল ৪টায় বান্দরবান সদর রেঞ্জের অনুমোদিত ইসলামী শিক্ষা কেন্দ্র স'মিলে অভিযান চালিয়ে ২১টুকরা নিষিদ্ধ চম্পাফুল কাঠ জব্দ করা হয়। বন আইন ২০১২অনুযায়ী চম্পাফুল গাছ কর্তন, পরিবহন, মজুদ ও বাজারজাতকরণ সম্পুর্ন নিষিদ্ধ হলেও একদল অসাধু ব্যবসায়ী নির্বিচারে কাটছে  নিষিদ্ধ  এ চম্পাফুল প্রজাতের গাছ। নিউগুলশান স'মিলের ম্যানেজার রাকিব জানান, আমার মিলে সাইজ করা চম্পাফুল কাঠগুলো নাজিম উদ্দীন প্রকাশ ডাবল নাজিমের। বান্দরবানে তার ব্যবসা পরিচালক ও ভাগ্নে সাকিব কাঠগুলো সাইজ করে পাচারের উপযোগী করেছেন। পরে জানলাম গাছগুলো বনবিভাগ জব্দ করেছে।

নাজিম উদ্দীন প্রকাশ ডাবল নাজিম চম্পাফুল কাঠ পাচারের সাথে জড়িত নয় বলে মুঠোফোনে জানান। বান্দরবান সদর রেঞ্জের রেঞ্জার ব্রজ গোপাল রাজ বংশী জানান, চম্পাফুল কাঠ আইন অনুযায়ী নিষিদ্ধ। এ কাঠ কেউ মজুদ রাখতে পারে না। আমারা ২১টুকরা কাঠ জব্দ করেছি তবে কাঠের মালিকানা সনাক্তের মত কোন হেমার পাওয়া যায়নি।

প্রসঙ্গত বিগত বছরের ৩এপ্রিল বান্দরবানের দুই বন বিভাগের যৌথ অভিযানে প্রায় ৭'শত ঘনফুট চম্পাফুল কাঠ জব্দ করা হয়। যা পরবর্তীতে সরকারি প্রতিষ্ঠান এফআইডিসিতে প্রেরণ করা হয়।

ট্যাগ: banglanewspaper বান্দরবান