banglanewspaper

খোকসা প্রতিনিধি: কুষ্টিয়ার খোকসা আমবাড়িয়া ইউনিয়নের উপ-নির্বাচনে প্রতীক বরাদ্দের পর আজ শুক্রবার থেকে শুরু হল নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণার কার্যক্রম। মহাজোটে নৌকা, মশাল, মটর সাইকেল মুখোমুখি অবস্থানে থাকলেও বিএনপিতে একক প্রার্থী! ভোট সুষ্ঠু হলে ধানের শীষই শেষ হাসি হাসতে পারে বলে ধারণা সাধারণ ভোটারদের।

শুক্রবার সকাল ১০ টার সময় উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও আমবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উপ-নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোহাঃ আব্দুল হাদী এর অফিস কার্যালয়ে প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল জাসদের নূরজাহান বেগম (মশাল প্রতীক), মোহাম্মদ আমিনুর রহমান খান, স্বতন্ত্র প্রার্থী (মোটরসাইকেল প্রতীক), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ নাজমুস সালেহীন (আনারস প্রতীক), স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান খান (চশমা প্রতীক), বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মো: মনিরুজ্জামান বিশ্বাস (নৌকা প্রতীক) ও বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র মোহাম্মদ রিজাউল করিম (ধানের শীষ প্রতীক) পেয়েছেন।

আমবাড়িয়া উপ-নির্বাচনে মোট সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ফরম সংগ্রহ করলেও সর্বশেষ একজন প্রত্যাহার করে নেওয়ায় এখন ৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন বলে কুষ্টিয়ার সময়কে জানিয়েছেন উপজেলা সার্ভার অফিস।

উপজেলা নির্বাচনী অফিসে প্রতীক বরাদ্দের পর নির্বাচন রিটার্নিং অফিসার মোহাঃ আব্দুল হাদী সকল প্রার্থীকে আচরণবিধি মেনে আজ শুক্রবার হতে নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম চালাতে পারবেন বলে জানান। 

এদিকে আমবাড়িয়া উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এলাকার বেশ নির্বাচনী আমেজ বিরাজ করছে। ভোটার প্রার্থীদের মধ্যে চলছে বেশ দরকষাকষি। প্রতিটা প্রার্থীই তাদের নিজ নিজ ইমেজ তুলে ধরে ভোটারদের মন জয় করার চেষ্টা করছে। দিন যতই গড়াচ্ছে নির্বাচনী আমেজে প্রার্থীদের পরিবেশ ততই পরিবর্তন হচ্ছে।
 
ইউনিয়নের রাজনৈতিক বিশ্লেষণে বলেন, আমিনুর রহমান খান বিশু স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় আওয়ামী লীগের গাদা থেকে ভোট ভাগ করে নিবেন বলে জানান। দুই বারের নির্বাচিত সাবেক এ চেয়ারম্যান বলেন এ নির্বাচনে আমি বিজয়ী হব।

সমাজতান্ত্রিক দল- জাসদ এর মোছাঃ নুরজাহান বেগম এর অবস্থানও ভালো অবস্থায় রয়েছে আমবাড়িয়া ইউনিয়নে নির্বাচনে এলাকাবাসীর কাছে। তার স্বামী সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল ইসলামের সুনামকে কাজে লাগাতে চাচ্ছেন তারই সহধর্মীনি। তিনিও প্রচারনায় বেশ এগিয়ে।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল থেকে মোঃ রিজাউল করিম মাস্টার ধানের শীষ প্রতীক পাওয়ায় জামায়াতের ভোট জোট প্রার্থীকে দেবে এমনটাই মনে করছে এলাকার রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকগণ। আমবাড়িয়া ইউনিয়ন বিএনপি অধ্যুষিত হওয়ায় তাকে অনেকটাই এগিয়ে রাখছেন সাধারণ ভোটাররা। এলাকায় তার ইমেজও অনেক ভালো।

এদিকে আওয়ামী লীগের মধ্য থেকে পদ না পাওয়া একধিক প্রার্থী স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় ভোটের সমীকরণ কি হয় তা এ মুহূর্তে বলা মুশকিল বলে জানান এলাকার ভোটাররা।

এদিকে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে পেশীশক্তি প্রয়োগের অভিযোগ করলেন জাসদের প্রার্থীর ছেলে সম্রাট ইসলাম। তিনি বলেন, ভোট সুষ্ঠুভাবে হলে আমরাই জিতবো। কিন্তু আওয়ামী লীগের প্রার্থী বল প্রয়োগ করছেন। তিনি আমাদের লোকদের ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকিও দিচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে মাদকের অভিযোগও তুললেন। 

আমবাড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক সফল চেয়ারম্যান আব্দুল কাইয়ুম বিশ্বাসের ছেলে নাজমুস সালেহীন এলাকায় শিক্ষিত ও ভদ্র বলে জনপ্রিয়। তার বাবার অপূর্ণ স্বপ্নকে পূরণ করতে তিনি নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছেন বলে জানান তিনি। এলাকার সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে রয়েছে কাইয়ুম বিশ্বাসের হাতের ছোঁয়া।

উপনির্বাচনী প্রচার পচারনার বেশ কিছু সময় এখনও হাতে থাকায় প্রার্থীদের ভোট সমীকরণ কি হয় তা বুঝে ভোটাররা সিদ্ধান্ত নিবেন বলে জানান এলাকার ভোটারগণ।

আগামী ১৫ মে ২০১৮ তারিখ আমবাড়িয়া উপ নির্বাচনে ভোট গ্রহণ হবে। 

আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের মোট ভোটার সংখ্যা ৮৩০৭জন এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৪২৫২ জন ও মহিলা ভোটার ৪০৫৫ জন। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মোট ৯টি কেন্দ্র থাকবে। মোট ভোট কক্ষের সংখ্যা থাকবে ২৫ টি, এছাড়াও অস্থায়ী ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা থাকবে ১টি।

ট্যাগ: Banglanewspaper খোকসা আমবাড়িয়া উপ-নির্বাচন

খুলনা
কুষ্টিয়ায় আরও ১৭ মৃত্যু

banglanewspaper

কুষ্টিয়া করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ১১ জন করোনা পজিটিভ ছিল এবং ৬ জন করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে শুক্রবার সকাল ৮টার মধ্যে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মেজবাউল আলম।

তিনি জানান, বর্তমানে হাসপাতালে ১৭৯ জন করোনায় আক্রান্ত রোগী এবং ৫৭ জনের উপসর্গসহ মোট ২৩৬ জন ভর্তি রয়েছে।

এদিকে পিসিআর ল্যাব এবং জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ১৭৭ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৫৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৩২ দশমিক ২০ শতাংশ।

ট্যাগ:

খুলনা
বিধিনিষেধের মধ্যে ইজিবাইকে পিকআপের ধাক্কায় নিহত ৬

banglanewspaper

সারা দেশে শুরু হওয়া ১৪ দিনের কঠোরতম বিধিনিষেধের মধ্যেই বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলায় পিকআপভ্যানের ধাক্কায় ইজিবাইকের ৬ যাত্রী নিহত হয়েছে। এতে আহত হয়েছে আরও একজন। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) সকাল সোয়া ৭টার দিকে উপজেলার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে বৈলতলী প্রাইমারি স্কুল এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

ফকিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইদুল আনাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

ওসি জানান, পণ্যবোঝাই একটি পিকআপ মোংলার দিকে যাচ্ছিল। এসময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ইজিবাইককে চাপা দেয় পিকআপটি। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান ইজিবাইকের ৬ যাত্রী। তাৎক্ষণিকভাবে নিহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি। 

এ ব্যাপারে বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক গোলাম সরোয়ার জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ৬ জনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগে একজনকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠিয়েছে এলাকাবাসী।

ট্যাগ:

খুলনা
কুষ্টিয়ায় ১০০টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করলেন হানিফ

banglanewspaper

করোনা মহামারি পরিস্থিতি জটিল আকার ধারণ করায় নিজের নির্বাচনী এলাকায় ১০০টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করে দিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও কুষ্টিয়া-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য মাহবুবউল আলম হানিফ।

জানা যায়, গত ৬ ও ৭ মে ব্যবসায়ীদের সহযোগিতায় প্রায় এক কোটি টাকা বাজেটে কুষ্টিয়া মহিনি মিল মাঠ ও শেখ রাসেল স্টেডিয়ামে ১১ হাজার অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়। সেই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মাহবুবউল আলম হানিফ। খাদ্য বিতরণ কর্মসূচিতে এক কোটি টাকার পুরোটা খরচ হয়নি। এখান থেকে উদ্বৃত্ত টাকা দিয়েই মূলত ১০০টি অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবস্থা করেন আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।


কুষ্টিয়ায় করোনা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। সেখানে অক্সিজেন ছাড়া অন্যান্য চিকিৎসাসামগ্রীর ব্যবস্থা করবেন বলেও আশ্বস্ত করেন মাহবুবউল আলম হানিফ।

এদিকে কুষ্টিয়ায় করোনা পরিস্থিতি খুবই নাজুক। পরিস্থিতি বিবেচনায় কঠোর লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে পু‌রো জেলায়। প্রতিদিন সেখানে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ায় অক্সিজেনের প্রয়োজনীয়তা বাড়ছে। ক্রমবর্ধমান এই করোনা রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ করতে কুষ্টিয়ার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরকে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে। এই অবস্থায় সাংসদ মাহবুবউল আলম হানিফের উদ্যোগে সরবরাহকৃত অক্সিজেন সিলিন্ডার অনেক উপকারে আসবে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ট্যাগ:

খুলনা
লকডাউনের চতুর্থ দিনে খুলনায় ৬০ মামলা

banglanewspaper

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে দেশে সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ নিশ্চিতকরণে খুলনা নগরীতেও প্রশাসন রয়েছে কঠোর অবস্থানে। 

সেই ধারাবাহিকতায় শনিবার (১৭ এপ্রিল) লকডাউনের চতুর্থ দিনেও কঠোর অবস্থানে ছিল প্রশাসন। এদিন খুলনা জেলাজুড়ে অভিযান পরিচালনা করে ৬০টি মামলায় ৩৮ হাজার সাতশো টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসনের মিডিয়া সেলের সূত্রে জানা যায়, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেনের নির্দেশে এবং অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুপ আলীর তত্ত্বাবধানে এদিন সমগ্র খুলনা জেলায় কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ব্যাপক অভিযান পরিচালিত হয়।

খুলনা মহানগরে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে দিনব্যাপী মোট ছয়টি টিম অভিযান পরিচালনা করে ৪৪ মামলায় ২৬ হাজার চারশো টাকা জরিমানা করা হয়।

এছাড়া বটিয়াঘাটা, দাকোপ, পাইকগাছা ও দিঘলিয়া উপজেলায় অভিযান পরিচালনা করেন স্ব-স্ব উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনাররা (ভূমি)। এসব অভিযানে উপজেলায় মোট ১৬ মামলায় ১২ হাজার তিনশো টাকা জরিমানা করা হয়। ‘সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ, নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন, ২০১৮’ এবং ‘দণ্ডবিধি, ১৮৬০’ এর সংশ্লিষ্ট ধারার বিধান মোতাবেক অর্থদণ্ড প্রদান করেন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেটরা।

মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় সহযোগিতা করেন পুলিশ, আনসার, এপিবিএন ও র‍্যাবের সদস্যরা। করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ নিশ্চিতকরণে জেলা প্রশাসনের এমন উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।

ট্যাগ:

খুলনা
শৈত্যপ্রবাহে চুয়াডাঙ্গায় জনজীবন বিপর্যস্ত

banglanewspaper

চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে টানা শৈত্যপ্রবাহ বয়ে চলায় ভোগান্তিতে পড়েছেন এ অঞ্চলের নিম্ন আয়ের মানুষ। চলতি সপ্তাহ ধরে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে চলছে এ জেলার ওপর দিয়ে। উত্তর থেকে বয়ে আসা হিমেল বাতাসে শীতের তীব্রতা আরও বেশি অনুভূত হচ্ছে।  

বুধবার (৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৯টায় জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চুয়াডাঙ্গার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে তীব্র থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহ। কুয়াশা আর ঠান্ডা বাতাসে জনজীবন একেবারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

চুয়াডাঙ্গা আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সামাদুল ইসলাম জানান, বুধবার সকাল ৯ টায় জেলার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিলো ৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিকে শীতে দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষ গরম কাপড়ের অভাবে কষ্টে দিনযাপন করছে। রেল স্টেশনের প্লাটফর্মে শীতের রাত কষ্টে পার করছে দরিদ্র ও ছিন্নমূল মানুষগুলো। জেলায় শৈত্যপ্রবাহ আরও বেশ কয়েক দিন থাকতে পারে। ঠান্ডা বাতাসের কারণে মানুষের দুর্ভোগ বেশি।

রোদের প্রখরতা না থাকায় ও বাতাসের গতিবেগ বেশি থাকায় শীতের তীব্রতা বেশি অনুভূত হচ্ছে।

ট্যাগ: