banglanewspaper

ইন্দুরকানী (পিরোজপুর) প্রতিনিধিঃ ইন্দুরকানীতে গ্রীষ্মকালীন ফুটবল খেলায় প্রতিপক্ষের এক খেলোয়াড়কে মারধর ঘটনায় অভিযুক্ত খেলোয়াড় ও প্রতিষ্ঠানকে ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিব আহমেদের সভাপতিত্বে এক সভায়উপজেলা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া সমিতির সভাপতি উপজেলা চেয়ারম্যান মাসুদ সাঈদীর উপস্থিতিতে উভয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও খেলায়াড় এবং অভিভাবকদের সাথে আলোচনা-পর্যালোচনা শেষেজরিমানার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এ সময় অভিযুক্ত খেলোয়াড় কাওসার মোল্লাকে ৫ হাজার টাকা এবং তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইন্দুরকানী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

জানা যায়, বুধবার উপজেলা পরিষদ মাঠে গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়ার ইন্দুরকানী মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও টগড়া কামিল মাদ্রাসার মধ্যকার ফুটবল খেলার সময় টগড়া কামিল মাদ্রাসার গোল রক্ষক শরিফুল ইসলাম গোল ঠেকানোয় প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড় কাওসার মোল্লা তাকে বুকের উপর আঘাত করে মাটিতে ফেলে দিয়ে দৌড়ে পালিয়ে যায়। ওই দিন রাতেইকাওসারকে ইন্দুরকানী থানা পুলিশ আটক করে।

বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে উভয়ের অভিভাবক সহ হাজির করলে অভিযুক্তকে কাওসারকে জরিমানা করে মুচলেকা রেখে ছেড়ে দেয়া হয়। এবং খেলার মাঠের শৃংখলা ভঙ্গের কারণে সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়কে ১০ হাজার টাকা জরিমান করা হয়। 

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মীর একেএম আবুল খায়ের জানান, খেলার মাঠে প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের উপর হামলা করায় এবং খেলার মাঠের শৃংখলা ভঙ্গের কারণে অভিযুক্ত খেলোয়াড় ও সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে।

ট্যাগ: Banglanewspaper ইন্দুরকানী