banglanewspaper

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আগামী এক মাসের স্কুল, কলেজ এমপিওভুক্তির বিষয়ে একটা সমাধান আসবে। তিনি বলেন, ঠিক কতগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা সম্ভব হবে সেটা নির্ভর করছে অর্থ প্রাপ্তির উপর। তবে আগামী একমাসের মধ্যে এমপিওভুক্তির বিষয়ে চূড়ান্ত সমাধান আসবে।

রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জাতীয় সংসদের ২২তম অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসাইনের (পটুয়াখালী-৩) সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী একথা বলেন। এর আগে বিকেল ৫টা ১৫ মিনিটে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে দিনের কার্যসূচি শুরু হয়।

মন্ত্রী বলেন, ‘এমপিওভুক্তির জন্য এরইমধ্যে আমরা অনলাইনে কিছু শর্ত দিয়ে আবেদন করার আহ্বান জানিয়েছি। আমরা বরাবরই অর্থমন্ত্রীর কাছে বরাদ্দ চেয়ে আসছি। এবার অর্থমন্ত্রী সম্মতি দিয়েছেন। তবে কত টাকা দেবেন সেটা এখনো জানা যায়নি।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্ত করতে হলে অর্থমন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের প্রয়োজন হয়। কারণ যারা চাকরি করেন, যে বেতন পান তারা অবসরে গেলে নতুন যারা আসবেন তারাও সেই বেতন পেয়ে যাবেন। এটা একটি চিরস্থায়ী বিষয়। আমরা অর্থ মন্ত্রণালয়ের কাছে আবেদন জানিয়েছি। অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে অর্থ কতটুক পেতে পারি সেটার ওপর নির্ভর করবে কতগুলো এমপিওভুক্ত হবে।’

বেগম সানজিদা খানমের অপর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ‘যেসব জেলায় সরকারি স্কুল-কলেজ নেই সেখানে সরকারিকরণ হবে। তবে যেখানে এরইমধ্যে স্কুল-কলেজ সরকারি করণ করা হয়েছে নতুন করে সেখানে কোনো স্কুল-কলেজ সরকারিকরণ করার পরিকল্পনা নেই।’

ট্যাগ: bdnewshour24 শিক্ষামন্ত্রী